The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

‘আমেরিকায় টুইন টাওয়ার সন্ত্রাসী হামলায় লাদেন জড়িত ছিলেন না’!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আগামীকাল ১১ সেপ্টেম্বর নজিরবিহীন টুইন টাওয়ার হামলার ১৩তম বার্ষিকী। এর একদিন আগেই বিশ্বের সংবাদ মাধ্যমগুলো সরব হয়েছে। সবাই জানতো ওই হামলায় লাদেন জড়িত। কিন্তু এবার বলা হয়েছে, ‘আমেরিকায় টুইন টাওয়ার সন্ত্রাসী হামলায় লাদেন জড়িত ছিলেন না’!

Bin Laden & America terrorist attack

এ পর্যন্ত সবাই জানেন যে, ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর আমেরিকায় নজিরবিহীন টুইন টাওয়ার সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় আল-কায়েদার তৎকালীন প্রধান ওসামা বিন লাদেন জড়িত ছিলেন। কিন্তু এবার বলা হয়েছে, ‘আমেরিকায় টুইন টাওয়ার সন্ত্রাসী হামলায় লাদেন জড়িত ছিলেন না’। মার্কিন সাংবাদিক জেমস হেনরি ফেটজার একথা বলেছেন।

ওই সাংবাদিক আরও বলেন, ‘পেন্টাগনের নব্যরক্ষণশীলরা মার্কিন এবং ইহুদিবাদী ইসরাইলের গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর সঙ্গে গোপন যোগসাজশ করেই ৯/১১ নামে পরিচিত এই ঘটনাটি ঘটিয়েছে।’

Bin Laden & America terrorist attack-002

ভেটার্ন ঢুডে সাময়িকীর সম্পাদক ও স্কলারস ফর ট্রুথ ফর নাইন/ইলিভেন সংস্থার সহ-প্রতিষ্ঠাতা হেনরি ফেটজার তার মন্তব্যে আরও বলেন, ইহুদিবাদী ইসরাইলের গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদ, সিআইএ ও নিউকন নামে পরিচিত পেন্টাগনের নব্যরক্ষণশীলরাই মূলত এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত।

ফেটজার মার্কিন উইনকোনসিন অঙ্গরাজ্যের ম্যাডিসনের অবসরপ্রাপ্ত একজন অধ্যাপক। তিনি বিভিন্ন খবর বিশ্লেষণ করে জানিয়েছেন, ‘৯/১১’র ঘটনার পর গ্রেফতার হওয়া আল-কায়েদার সন্দেহভাজন বন্দিদের নির্যাতন চালিয়ে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিয়েছিল মার্কিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা।’ নির্যাতনের মাধ্যমে ৯/১১ হামলার বিষয়ে কথিত চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া গেছে এমন কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এসব নির্যাতনের মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘনও করা হয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘সে সময় বন্দিদের চোখ-মুখ কাপড়ে বেঁধে, পানিতে চুবিয়ে নির্যাতন চালিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিআইএ। এসব হতভাগ্য বন্দিদের মধ্যে ৯/১১’র ঘটনার (কথিত) প্রধান পরিকল্পনাকারী খালিদ শেখ মোহাম্মদও ছিলেন। ৯/১১ ঘটনার পরিকল্পনার স্বীকারোক্তি এভাবেই তার কাছ হতে আদায় করা হয়েছিল।’

উল্লেখ্য, আগামীকাল ১১ সেপ্টেম্বর নজিরবিহীন টুইন টাওয়ার হামলার ১৩তম বার্ষিকীর আগ মুহূর্তে এসব তথ্য বিশ্ববাসীকে হতভম্ব করেছে। কারণ এতোদিন স্বীকৃত ছিল আল-কায়েদা প্রধান ওসামা বিন লাদেনই এই ঘটনার মূল নায়ক।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...