The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

redporn sex videos porn movies black cock girl in blue bikini blowjobs in pov and wanks off.

বাচ্চা হওয়ার ‘খেসারত’ ৬ কোটি টাকা!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ এক দম্পতিকে বাচ্চা হওয়ার ‘খেসারত’ গুণতে হয়েছে ৬ কোটি টাকা। এক কানাডিয়ান গর্ভবতি দম্পতি হাওয়াইয়ে ছুটি কাটাতে এসে হাসপাতলে ভর্তি হন। বাধ্য হয়ে দীর্ঘদিন ধরে হাসপাতালে থাকার কারণে তাদের বিল হয় ৬ কোটি টাকা।

damages 6 million

এক কানাডিয়ান দম্পতি হাওয়াইয়ে ছুটি কাটাতে আসেন। সেখানে জেনিফার হুকুল্যাক হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। এর কারণ হলো গর্ভবতী ছিলেন জেনিফার। ৬ সপ্তাহ হাসপাতলে ভর্তি থাকার পর তিনি প্রিম্যাচিয়োর সন্তানের জন্ম দেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানান, তাদের ওই সন্তান রিককে আরও দুমাস ইনটেনসিভ কেয়ারে রাখতে হবে। অনুমান করুন কত বিল করতে পারে হাসপাতালের?

হয়তো আপনি ভাবছেন আর কতো হতে পারে। দু’লাখ বা পাঁচ লাখ। কিন্তু সেটি পরিমাণটা ভুল বললেন। হাসপাতালের বিল হয়েছিল ৯৫০,০০০ মার্কিন ডলার। অর্থাৎ ভারতের মুদ্রায় ৫ কোটি ৮৯ লক্ষ ৯০ হাজার। এবার ভাবুন বিদেশে এসে এতো টাকা কিভাবে জোগাড় করবেন এই দম্পতি।

ট্যুরে আসার আগে ব্লু ক্রস বীমা কোম্পানীর কাছে ট্রাভেল বীমা করিয়েছিল তারা। জেনিফারে শরীর অসুস্থতা থাকার সত্ত্বেও বীমা কোম্পানি আশ্বস্ত করেছিল ট্রাভলের সময় যেকোনও শরীর খারাপে চিকিৎসার খরচ পাবেন তারা। ড্যারেন যোগাযোগ করেন বীমা কোম্পানীর সঙ্গেও। কিন্তু তারা অস্বীকার করেন এতো টাকা দেওয়ার। বীমা কোম্পানী জানায়, জেনিফারের সন্তানের জন্য কোনও চিকিৎসার খরচ তারা দেবে না।

তাহলে কি হবে ওই দম্পতির? এই খবর সংবাদমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর ব্লু ক্রস বীমা কোম্পানী নড়চড়ে বসে। কোম্পানী সংবাদমাধ্যমকে শেষ পর্যন্ত জানান, ‘আমরা পুর্ণবিবেচনা করে দেখছি তাদেরকে কীভাবে সাহায্য করা যায়। কারণ আমাদের টার্ম এ্যান্ড কন্ডিশনে শিশুর চিকিৎসার খরচ দেওয়ার বিধান নেই’।

পরে এই দম্পতির করুণ অবস্থা দেখে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ৯৯ লক্ষ ৩৫ হাজার টাকা ধার হিসেবে রেখেছিলেন। এছাড়া বিল হতেও ২৪ লক্ষ টাকা ছাড় দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু এতে যে তাদের সমস্যা সমাধান হবে না ওই দম্পতি ভালভাবেই জানেন। সস্কাচিয়ান সরকারের কাছে সাহায্যের অনুরোধ করলে সরকারের তরফ হতে সাড়ে ১২ লক্ষ টাকা দেওয়া হয়। এরপরও হাত পাততে হয় জনসাধারণের কাছে। কিন্তু সেই ধার এখনও মেটেনি। এক বছর আগের ঘটনা। তাদের সন্তান রিকের বয়স এখন প্রায় এক বছর। আর মাথায় ঋণের বোঝা কোটি টাকা। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে শেষ পর্যন্ত আত্মসমর্পণ করা ছাড়া হয়তো কোনও উপায় নেই এই দম্পতির।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...
sex không che
mms desi
wwwxxx