The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

কবর দেওয়ার সময় নড়ে উঠলো শিশু!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মাত্র ক’দিন আগে ভারতের এক ব্যক্তিকে শেষকৃত্যের সময় নড়ে উঠে জানান দিলেন তিনি বেঁচে আছেন। এবার ঘটেছে আমাদের দেশে এমন একটি ঘটনা। কবর দেওয়ার সময় নড়ে উঠলো শিশু!

DMC & child

সাম্প্রতিককালে এ ধরনের ঘটনা ঘটছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। গত কিছুদিন আগে রাস্তার পরিত্যাক্ত এক বৃদ্ধাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আনা হলে তাকে পরে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন। পরে হিমঘরে তিনি নড়ে ওঠেন। এরপর আবার তার চিকিৎসা শুরু হয়। পরে অবশ্য ওই মহিলা মারা যান। আজ আবার ঢামেকে এমন ঘটনা ঘটেছে। মৃত ঘোষণার ঘণ্টা তিনেক পর কবর দেওয়ার সময় এবার জেগে উঠলো নবজাতক। পরে ওই শিশুকে আইসিইউতে ভর্তি করানো হয়েছে। এখন শিশুটিকে সেখানেই চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

শিশুর খালু মাহমুদুল করিম সংবাদ মাধ্যমকে জানান, গতকাল শুক্রবার রাত ১০টার দিকে ঢামেকের ২১২ নম্বর গাইনী ওয়ার্ডে ভর্তি করানো হয় সুলতানা বেগমকে। তিনি একটি ছেলে সন্তানের জন্ম দেন। কিন্তু জন্মের পর চিকিৎসকরা নবজাতককে মৃত ঘোষণা করেন। সুলতানা বেগমের গ্রামের বাড়ি দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের চুনকুঠিয়া গ্রামে। সুলতানা বেগমের স্বামীর নাম জাহাঙ্গীর হোসেন। তার স্বামী একটি কারখানায় কাজ করেন।

আজ শনিবার দুপুরের দিকে শিশুটির স্বজনরা আজিমপুরের কবরস্থানে দাফন করতে গেলে শিশুটি নড়েচড়ে ওঠে। এ দৃশ্য দেখে সবাই হতবাক হন। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় শিশুটিকে ঢামেকের আইসিইউতে ভর্তি করানো হয়।

এদিকে শিশুটিকে হাসপাতালে আসার সঙ্গে সঙ্গে তার সমস্ত কাগজপত্র নিয়ে নেওয়া হয়। সেখানে তার ডেথ সার্টিফিকেটও ছিল। ওই ডেথ সার্টিফিকেট দেওয়া চিকিৎসককে বাঁচানোর জন্য অন্যরা ব্যতিব্যস্ত হয়ে পড়েন। পরে হাসপাতাল কর্তৃৃপক্ষ চিকিৎসকের নাম প্রকাশ না করে শিশুটির চিকিৎসা করে সুস্থ্য করার প্রতিশ্রুতি দেন।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...