বিশ্বকাপ ক্রিকেট: আল-আমিনের দেশে ফেরা নিয়ে নানা প্রশ্ন দানা বাঁধছে!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বিশ্বকাপ ক্রিকেট নিয়ে দেশ যখন মেতে রয়েছে ঠিক সেই মুহূর্তে বাংলাদেশের একজন খেলোয়াড়কে ফেরত পাঠানো নিয়ে শুরু হয়েছে নানা গুঞ্জন। আল-আমিনের দেশে ফেরা নিয়ে নানা প্রশ্ন দানা বাঁধছে।

the Questions about Al-Amin

সাধারণভাবে বলা হয়, দলীয় শৃংঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে বিশ্বকাপ হতে দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে। কিন্তু আসলেও কি তাই? নাকি এর পিছনে অন্যকিছু রয়েছে? এরজন্য কি আল আমিন একায় দায়ি নাকি অন্য কেও এরজন্য দায়ি? এমন নানা প্রশ্ন মানুষের মনে দানা বেধেছে। এমন ঘটনার সঙ্গে পরিচিত নয় বাংলাদেশ। তবে এবার সেই অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। আল আমিন দেশে ফেরার কারণে বিকল্প হিসাবে অস্ট্রেলিয়া উড়ে গেছেন পেসার শফিউল ইসলাম।

হঠাৎ করে বিশ্বকাপ ক্রিকেটে বাংলাদেশ দলের তরুণ পেসার আল আমিনের গতিবিধি সন্দেহজনক বলে বিসিবি’র টিম ম্যানেজম্যান্টকে জানিয়েছিল আইসিসি নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (আকসু) কিছু সদস্য। কিন্তু তার বিরুদ্ধে আভিযোগ প্রমাণিত হওয়ার আগেই বিসিবি’র টিম ম্যানেজম্যান্ট তাকে দেশে ফেরত পাঠিয়ে দেন। ফলে এ নিয়ে সমালোচনা ক্রমেই বাড়ছে। কেও আঙ্গুল তুলছেন বিসিবির দিকে। আবার কেওবা দলীয় ম্যানেজার খালেদ মাহমুদকে উঠাচ্ছেন অভিযোগের কাঠগড়ায়।

তবে আল আমিনের আসলে কী দোষ ছিল, তা এখন পর্যন্ত জানা যায়নি। আবার ক্রিকেট বোর্ডও মুখ না খুলে একটি বিজ্ঞপ্তির মাধ্যেমে শুধু জানিয়েছে, ‘আল আমিন দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করেছে। তাই তাকে দেশে ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।’ দলের মিডিয়া কমিটিও একেবারে নীরব। বিষয়টি তাই ধোয়াশাই মনে হচ্ছে। দোষটা আসলে কার আল-আমিনের? নাকি এর পেছনে দলের ম্যানেজম্যান্টও কিছুটা দায়ী। সে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে। তবে সময়ই বলে দেবে আসলে সেদিন কি ঘটেছিল এবং এর জন্য দায়ি কে।

Advertisements
Loading...