আল্লাহ লেখা আংটি পাওয়া গেছে প্রাচীন ভাইকিং লাশে!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আল্লাহ লেখা আংটি পাওয়া গেছে প্রাচীন ভাইকিং লাশে! আরব এবং মুসলমানদের সাথে ভাইকিংদের যোগযোগ বহু আগে থেকেই যে ছিল এটিই তার একটি প্রমাণ বলে মনে করা হচ্ছে।

the ancient Vikings & ring

আল্লাহ লেখা আংটি পাওয়া গেছে প্রাচীন ভাইকিং লাশে! আরব এবং মুসলমানদের সাথে ভাইকিংদের যোগযোগ বহু আগে থেকেই যে ছিল এটিই তার একটি প্রমাণ বলে মনে করা হচ্ছে। স্ক্যান্ডিনেভিয়ান দেশগুলিতে মুসলমান অভিবাসীদের নিয়ে যেসব সমস্যা রয়েছে তা একেবারেই নতুন। কিন্তু যে কথাটি বেশিরভাগ লোকেরই অজানা তা হলো, আরবও মুসলমানদের সঙ্গে ভাইকিংদের যোগযোগ বহু আগে হতেই ছিল। এই আংটি উদ্ধারের মধ্যদিয়ে তারই একটি প্রমাণ পাওয়া গেলো বর্তমান সুইডেনের একটি প্রাচীন বাণিজ্য কেন্দ্র বির্কায়।

ওয়াশিংটন পোস্টে বলা হয়েছে, সেখানে ৯ম শতাব্দির প্রাচীন একটি কবর খুঁড়ে এক মহিলার দেহাবশেষ পাওয়া গেছে। তার হাতে একটি আংটি ছিল, আর সেই আংটিতে লেখা ছিল প্রাচীন আরবিতে ‘আল্লাহর প্রতি’। জানা যায়, এটি খনন করেছেন সুইডেনের বিখ্যাত প্রত্নতাত্ত্বিক জালমার স্টলপে।

এ বিষয়ে ওয়াশিংটন পোস্ট বলেছে, রূপার তৈরি ওই আঙটিতে যে খুফিক আরবি লেখা রয়েছে তার প্রচলন ছিল ৮ম হতে ১০ম শতাব্দিতে। পুরো স্ক্যান্ডিনেভিয়া জুড়ে এটিই একমাত্র আরবি নিদর্শন। জানা যায়, ওই নারীর পরনে ছিল স্ক্যান্ডিনেভিয়ার স্থানীয় পোশাক। ধারণা করা হচ্ছে ব্যবসার মাধ্যমে এনে এই আঙটি তাকে উপহার দেওয়া হয়েছিল।

স্টকহোম বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক সেবাস্টিয়ান ওয়ার্মল্যান্ডার এবং সহকর্মীরা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখেছেন যে, ‘আংটিটি বহু লোক ব্যবহার করেনি। ভাইকিংদের সঙ্গে আব্বাসীয় খিলাফতের যে সরাসরি বাণিজ্যিক সম্পর্ক ছিল এই আঙটি তারই একটি প্রমাণ।’

উল্লেখ্য, ভাইকিং নারী কিংবা পুরুষের জন্য রূপা ছিল সামাজিক মর্যাদা এবং প্রতিপত্তির প্রতীক। যে কারণে তারা মৃত ব্যক্তির সঙ্গেও রূপার অলঙ্কার কবরে দিয়ে দিতো।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...