সৌরশক্তি চালিত বিমান টানা ১১৮ ঘণ্টা উড়ে প্রশান্ত মহাসাগর পাড়ি!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বিজ্ঞান ক্রমেই মানুষের দোরগোড়ায় এসে হাজির হচ্ছে। এবার বিজ্ঞানের বদৌলতে সৌরশক্তি চালিত বিমান টানা ১১৮ ঘণ্টা উড়ে প্রশান্ত মহাসাগর পাড়ি দিলো বিমান ‘সোলার ইমপালস-২’!

solar powered aircraft

বিজ্ঞান ক্রমেই মানুষের দোরগোড়ায় এসে হাজির হচ্ছে। এবার বিজ্ঞানের বদৌলতে সৌরশক্তি চালিত বিমান টানা ১১৮ ঘণ্টা উড়ে প্রশান্ত মহাসাগর পাড়ি দিলো বিমান ‘সোলার ইমপালস-২’!

জাপানের নাগায়া দ্বীপ হতে যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জের এই যাত্রায় ওই বিমানটিকে পাড়ি দিতে হয়েছে দীর্ঘ ৭ হাজার ২০০ কিলোমিটার পথ। এই ঐতিহাসিক যাত্রার মাধ্যমে বিশ্বরেকর্ড গড়লো মনুষ্যবাহী সৌরশক্তিচালিত প্রথম বিমানটি।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, আন্তর্জাতিক সময় ২৮ জুন সন্ধ্যা ৬.০৩ মিনিটের সময় জাপানের নাগোয়া দ্বীপ হতে উড়াল দেয় এই বিমানটি। এরপর ৩ জুলাই সন্ধ্যা ৫.৫৫ মিনিটে যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জে অবতরণ করে বিশ্বের প্রথম সৌরশক্তি চালিত বিমান সোলার ইমপালস-২।

টানা ১১৮ ঘণ্টা ওড়ার পর হাওয়াইয়ে নেমে পাইলট সুইস বৈমানিক আন্দ্রে বোরসেকবার্গ সাংবাদিকদের বলেন, ‘মজার ব্যাপার হলো, আমি সত্যিই কোনো ক্লান্ত নই। আমি আসলেও বিস্মিত। ফ্লাইটটিতে আমরা অনেক মানুষের সহযোগিতা পেয়েছি। তাদের উৎসাহ-অনুপ্রেরণাই আমাদের শক্তি যুগিয়েছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের আরও কিছু কাজ বাকি রয়েছে। সেসব সম্পন্ন করতে পারলেই এ যাত্রাকে আমরা সফল বলতে পারবো।’

পরিবেশবাদী প্রচারণায় গত ৯ মার্চ আরব আমিরাতের রাজধানী আবুধাবির আল বাতেন এক্সিকিউটিভ বিমানবন্দর হতে স্থানীয় সময় সকাল ৭টায় একটি প্রাইভেটকারের চেয়ে কিছু বেশি ওজনের এই বিশাল পাখাওয়ালা বিমানটি পরীক্ষামূলক বিশ্বযাত্রা শুরু করে।
আবুধাবি হতে এটি ওমান, ভারত এবং মায়ানমার হয়ে গত ২১ এপ্রিল চীন পৌঁছায়।

উল্লেখ্য, ৭২ মিটার লম্বা ডানার উড়োজাহাজটির ওজন ২.৩ টন। সাধারণত একটি বোয়িং ৭৪৭-৮১ প্লেন ডানাসহ ৬৮.৫ মিটার প্রশস্ত হয়ে থাকে। শক্তির উৎস হিসেবে এই বিমানের ডানার উপর বসানো রয়েছে ১৭ হাজার সৌরকোষ। আবার রাত্রিকালে উড্ডয়নের জন্য শক্তির নিরবচ্ছিন্ন সরবরাহ বজায় রাখার জন্য এতে রয়েছে লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারিও।

Advertisements
Loading...