এক কিশোরের মৃত্যু হলো ২ হাজার ঘণ্টার বেশি গেম খেলে!

Shin Minchul, a 21-year-old college student, plays online computer games at an Internet cafe in Seoul, South Korea, Wednesday, Dec. 11, 2013. A law under consideration in South Korea's parliament has sparked vociferous debate by grouping popular online games such as "StarCraft" with gambling, drugs and alcohol as an anti-social addiction the government should do more to stamp out.(AP Photo/Ahn Young-joon)

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ এবার এক কিশোরের মৃত্যু হলো ২ হাজার ঘণ্টা টানা কম্পিউটার গেম খেলে! রুস্তম নামের ১৭ বছরের ওই কিশোর দক্ষিণ রাশিয়ার বাশখোরতোস্তান প্রজাতন্ত্রের উচালি শহরে বসবাস করতো।

Shin Minchul, a 21-year-old college student, plays online computer games at an Internet cafe in Seoul, South Korea, Wednesday, Dec. 11, 2013. A law under consideration in South Korea's parliament has sparked vociferous debate by grouping popular online games such as "StarCraft" with gambling, drugs and alcohol as an anti-social addiction the government should do more to stamp out.(AP Photo/Ahn Young-joon)

এবার এক কিশোরের মৃত্যু হলো ২ হাজার ঘণ্টা টানা কম্পিউটার গেম খেলে! রুস্তম নামের ১৭ বছরের ওই কিশোর দক্ষিণ রাশিয়ার বাশখোরতোস্তান প্রজাতন্ত্রের উচালি শহরে বসবাস করতো। ৩০ আগস্ট ওই কিশোরের মৃত্যু হয়।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়, দুর্ঘটনায় পা ভেঙে ৮ আগস্ট হতে বাড়িতে অবস্থান করছিল কিশোর রুস্তম। সময় কাটাতে সে অনলাইনে ‘ডিফেন্স অব দ্যা অ্যানসেন্টস’ নামে একটি গেম খেলা শুরু করেছিল। একমাত্র খাওয়া ও কিছু সময় ঘুমানোর সময় ছাড়া বাকি সময় গেম খেলেই কাটিয়েছে রুস্তম।

তদন্তকারী পুলিশ কর্মকর্তারা বলেছেন, গত দেড় বছরে এই কিশোর ২ হাজার ঘন্টার বেশি সময় অনলাইনে গেম খেলেছে। রুস্তমের বাবা-মাও বলেছেন, সর্বক্ষণই তাদের ছেলের ঘর হতে কি-বোর্ডের আওয়াজ আসতো। ৩০ অাগস্ট কোনও আওয়াজ না পেয়ে ঘরে ঢুকে দেখেন রুস্তম অচৈতন্য অবস্থায় পড়ে আছে। হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সেকেন্ড ক্লাস সিন্ড্রোম এবং দীর্ঘক্ষণ শরীর নড়াচড়া না করার কারণে রক্ত জমাট বেঁধে রুস্তমের মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করছেন চিকিৎসকরা। শিশু অধিকার বিষয়ক কর্মকর্তা পাভেল আস্তাখোভ, এই ঘটনাকে সব অভিভাবকের জন্য ‘ভয়াবহ সতর্ক সংকেত’ -এমন মন্তব্য করেছেন।

পাভেল আস্তাখোভ বলেন, ‘সম্মানিত অভিভাবকরা আপনার সন্তানের প্রতি মনোযোগী হোন। তাদেরকে কম্পিউটার, ইন্টারনেট এবং গেমসের প্রতি আসক্ত হতে দেবেন না।’

উল্লেখ্য, ইতিপূর্বে ২০১৪ সালের মার্চে সাংহাইয়ের একটি ইন্টারনেট ক্যাফেতে টানা ১৯ ঘন্টা গেম খেলার পর ২৩ বছরের এক চীনা তরুণের মৃত্যু ঘটেছিল।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...