‘জীনের মসজিদ খ্যাত’ মসজিদ-ই-জামে আব্দুল্লাহ

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ শুভ সকাল। আজ শুক্রবার, ৬ নভেম্বর ২০১৫ খৃস্টাব্দ, ২২ কার্তিক ১৪২২ বঙ্গাব্দ, ২৩ মহররম ১৪৩৭ হিজরি। দি ঢাকা টাইমস্ -এর পক্ষ থেকে সকলকে শুভ সকাল। আজ যাদের জন্মদিন তাদের সকলকে জানাই জন্মদিনের শুভেচ্ছা- শুভ জন্মদিন।

Masjid-i-Jami Abdullah

যে ছবিটি দেখছেন সেটি ‘জীনের মসজিদ খ্যাত’ মসজিদ-ই-জামে আব্দুল্লাহ। লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুর শহরের দেনায়েতপুর এলাকায় এই মসজিদটি ১৮৮৮ সালে ৫৭ শতাংশ জমির ওপর নির্মিত হয়। ১১০ ফুট দৈর্ঘ্য ও ৭০ ফুট প্রস্থের এই মসজিদে রয়েছে ৩টি গম্বুজ, ৪টি মিনার।

এই মসজিদটির তলদেশে ২০ হতে ২৫ ফুট নিচে রয়েছে একটি ‘গোপন ইবাদতখানা’। মসজিদের ভিটার উচ্চতা প্রায় ১৫ ফুটের মতো। তাই ১৩ ধাপ সিঁড়ি ডিঙ্গিয়ে এই মসজিদে প্রবেশ করতে হয়। মসজিদটির দেওয়ালের প্রস্থ ৮ ফুট। সম্মুখের মিনারের উচ্চতা ২৫ ফুট। মসজিদের সামনে রয়েছে বিশাল একটি পুকুর। পুকুরের সঙ্গে রয়েছে আজান দেওয়ার ২০ ফুট উচ্চতার একটি মিম্বরও।

শোনা যায়, ২০/২৫ ফুট তলদেশে থাকা পাকা গোপন ইবাদতখানার মসজিদের প্রতিষ্ঠাতা মৌলভী আবদুল্লাহ সাহেব আল্লাহর ধ্যানে নিমগ্ন থাকতেন। তার মৃত্যুর কয়েকবছর পরই ওই কক্ষে পানি জমে । এই কূপে প্রবেশের জন্য মসজিদের দক্ষিণ পাশে রয়েছে পাকা সিঁড়ি। কূপে পানি থাকার কারণে দর্শনার্থীদের কৌতুহল থাকে বেশি। অনেকেই রোগশোক হতে মুক্তি পেতে ওই পানি পান করেন।

ছবি ও তথ্যসূত্র: http://janatarkontho.com এর সৌজন্যে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...