এবার ওয়াই ফাই সংযোগ কবরস্থানেও!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সবস্থানে যদি আধুনিক প্রযুক্তির সমাহার স্থান পায়, তাহলে কবরস্থানে নয় কেনো? ঠিক তাই, এবার ওয়াই ফাই সংযোগ দেওয়া হলো কবরস্থানেও!

Wi-Fi connection in the graveyard

সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত এক খবরে বলা হয়েছে, রাশিয়ার ৩টি বিখ্যাত কবরস্থান এবার ডিজিটাল যুগে প্রবেশ করতে যাচ্ছে। ওই বিখ্যাত ৩টি কবরস্থানে সংযোগ দেওয়া হচ্ছে ওয়াই ফাই। আত্মীয়-স্বজন কিংবা বন্ধু-বান্ধবরা যারা কবর পরিদর্শন করতে যান তারা সেখানে ইন্টারনেট ব্রাউজ করতে পারবেন তাও আবার বিনা খরচে।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বলছে, আগামী বছরের মাঝামাঝির দিকে এই ৩টি কবরস্থানে ওয়াই ফাই সংযোগ স্থাপনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
শহরের ওইসব কবরস্থানগুলোর দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আরটেম ইয়েকিমভ বলেছেন, এবা ৩টি কবরস্থানে যেসব বিখ্যাত লোকজনকে দাফন করা হয়েছে তাদের লোকজন যাতে তাদের সম্পর্কে জানতে পারেন, কার কবর কোথায় সেটা খুঁজে বের করতে পারেন সেই লক্ষ্যে এমন সিদ্ধান্ত। লোকজন যাতে আরও বেশি করে এসব কবরস্থানে আসেন সেজন্যেই বিনা খরচে ইন্টারনেট সেবা দেওয়া হবে।

সেজন্য একটি জরিপও চালানো হয়। জরিপে দেখা যায়, কবরস্থানগুলোতে ওয়াই ফাই না থাকায় অনেকেই সেখানে যেতে চান না। ওয়াই-ফাই স্থাপনকারি টেলিযোগাযোগ প্রতিষ্ঠানের প্রধান বলেছেন, নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা রেখেই অত্যন্ত স্পশর্কাতর এই কাজটি আমরা হাতে নিয়েছি।

উল্লেখ্য, মস্কোর এই ৩টি কবরস্থান অত্যন্ত জনপ্রিয়। সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় নভোদেভিচি নামের একটি কবরস্থান। পর্যটকদের জন্যেও আকর্ষণীয় জায়গা। কবরস্থানে যেসব বিখ্যাত লোকজনকে সমাধিস্থ করা হয়েছে তাদের মধ্যে রয়েছেন রাশিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট বরিস ইয়েলৎসিন, লেখক আন্তন চেখভ, সাবেক সোভিয়েত নেতা নিকিতা ক্রুশ্চেভসহ বিখ্যাত ব্যক্তিরা। তথ্যসূত্র: http://www.ibtimes.co.uk

Advertisements
Loading...