বাংলাদেশে ফেসবুক কেন্দ্রিক ব্যবসাকে সমৃদ্ধশালী করতে আসছে এফ-কমার্স সামিট ২০১৬

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আমরা জানি যে বাংলাদেশের মতো একটি দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য দরকার উদ্ভাবনী ধারণা এবং ব্যবসা পন্থা।


f-commerce summit

বাংলাদেশের জনসংখ্যার প্রায় ৭০ শতাংশ মানুষের বয়সই ৩৫ বছরের কম, যাদের মাধ্যমে অর্থনৈতিক উন্নয়ন আরো দ্বিগুণ পরিমাণ হতে পারে বলে মনে করা হয়। মূলত বাংলাদেশের অর্থনীতির মান উন্নয়ন অনেকাংশে এই তরুণদের নতুনত্ব এবং সৃজনশীলতার উপর নির্ভরশীল।

আর সে ধারণার সাথে সঙ্গতি রেখেই, সারাদেশ হতে শত শত তরুণ উদ্যোক্তা নিয়ে আসছে আকর্ষণীয় সব সৃজনশীল পন্থা। তারা আক্ষরিক অর্থেই শক্তিমান এই সামাজিক মাধ্যম ফেসবুককে গড়ে তুলছে কার্যকর অনলাইন ক্রয়-বিক্রয়ের মাধ্যম। এই মানুষ গুলোর সৃষ্টিশীলতার কারণেই ফেসবুক এখন শুধুমাত্র আর সামাজিক যোগাযোগের ক্ষেত্রই নয়, এর চেয়েও বেশি কিছু! সেই জন্য, ২০১৫ সালের সফল সামিটের পর, এফ-কমার্স ব্যবসাকে সমৃদ্ধশালী করে তুলতে এবং তাদের সম্ভাবনাকে বাস্তবে রুপান্তরিত করতে দ্বিতীয়বারের মতো আয়োজন হতে যাচ্ছে জাতীয় পর্যায়ের এফ-কমার্স সামিট ২০১৬

বাংলাদেশের শত সহস্র ফেসবুক পেজ এফ-কমার্সের মাধ্যমে তাদের বিশাল বিক্রয় চালিয়ে যাচ্ছে যা আরো বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে, যদি এই উদ্যোক্তাদের সঠিক নির্দেশনা ও অবকাঠামোগত সহায়তা দেওয়া হয়। যেখানে পরিচিত মানুষ-জন এবং ই-কমার্স ব্যবসার জন্য রয়েছে জোরালো কণ্ঠ ও তদবির গোষ্ঠী, সেখানে নীতিনির্ধারক এবং সামগ্রিক ব্যবসায়িক সম্প্রদায় এখনো এফ-কমার্সকে গুরুত্ব সহকারে আমলে নেয়নি। যদিও, নীতিনির্ধারক এবং সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি-সম্প্রদায়ের উচিৎ উদ্যোক্তাদের এই অপার সম্ভাবনার কারণে এফ-কমার্স ব্যবসা নীতি ও পরিকাঠামোগত সহায়তা প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহণ করা। সেই লক্ষে, এইবারের সামিটে উদ্যোক্তারা, নীতিনির্ধারক, শিল্প-সংশ্লিষ্ট, মিডিয়া, প্রভাবশালী বিশেষজ্ঞরা আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির চূড়ান্ত লক্ষ্য নিয়ে আলোচনা এবং সম্মিলিত কন্ঠ তৈরির লক্ষ্যে আবারো একই ছাদের নিচে সংগঠিত হবেন। এই কার্যক্রমটি বিকাশমান এফ-কমার্স অর্থনীতিকে প্রদর্শনীয়, উজ্জবিত এবং অনুপ্রাণিত করবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

ভিডিওঃ

নির্দিষ্ট উদ্দেশ্যগুলো কি কি?

এই কার্যক্রমের মূখ্য উদ্দেশ্য হচ্ছে প্রকৃত উদ্যোক্তাদের, নীতিনির্ধারক, শিল্প-সংশ্লিষ্ট, মিডিয়া এবং ক্ষেত্র বিশেষজ্ঞদের সংযুক্ত করা। এছাড়াও এই সম্মেলন চলাকালীন ত্রিশটি বর্তমান এফ-কমার্স ব্যবসা দু’দিন তাদের পণ্য এবং সেবা দেখানোর সুযোগ পাবে এবং পাঁচটি এফ-কমার্স ব্যবসাকে পুরষ্কার প্রদান করা হবে। প্রথমবারের আয়োজনে সম্মেলনে ১০০০ জনেরও বেশি উপস্থিতি পরিলক্ষিত হয়েছিলো। এবারের উদ্দেশ্য হচ্ছে, দুই দিন ব্যাপী এই আয়োজনে ২০০০ হাজারেও বেশি আমন্ত্রিত অতিথিদের উপস্থিতি।

সংগঠক সম্পর্কেঃ

GEEKY Social এমন একটি ৩৬০ ডিগ্রি (চতুর্মুখী/সর্বব্যাপী) সামাজিক ও ডিজিটাল মিডিয়া মার্কেটিং প্রতিষ্ঠান যা বিভিন্ন ব্র্যান্ডকে তাদের বিনিয়োগের সর্বোচ্চ লাভ তুলে আনতে সাহায্য করে। সামাজিক দায়বদ্ধতা এবং বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে অবদানের প্রতি অঙ্গীকারের অংশ হিসেবে GEEKY Social প্রতি বছর এই সামিট আয়োজন করে থাকে।

বিস্তারিত জানতে এবং অংশ গ্রহণ করতে ভিজিট করুন – http://fsummit.geekysocial.com/

Advertisements
Loading...