সাদিক খান হলেন লন্ডনের প্রথম মুসলমান মেয়র

In this April 28, 2016 photo, Candidate for London Mayor Sadiq Khan speaks during an assembly at the London Mayor election event of London Citizens in London. In the race to become London’s next mayor, one candidate is a bus driver's son who grew up in social housing, the other a billionaire's son raised in a mansion. They are two very different London success stories, and one is about to become mayor of Europe's largest city. The contrast between Labour's Sadiq Khan and Conservative candidate Zac Goldsmith is resonant in a city where soaring property prices are increasing income disparities.(AP Photo/Frank Augstein)

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ লন্ডনের প্রথম মুসলমান মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন পাকিস্তানী বংশোদ্ভূত সাদিক খান। ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির প্রার্থী জ্যাক গোল্ডস্মিথকে ৯ শতাংশ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করেছেন তিনি।

In this April 28, 2016 photo, Candidate for London Mayor Sadiq Khan speaks during an assembly at the London Mayor election event of London Citizens in London. In the race to become London’s next mayor, one candidate is a bus driver's son who grew up in social housing, the other a billionaire's son raised in a mansion. They are two very different London success stories, and one is about to become mayor of Europe's largest city. The contrast between Labour's Sadiq Khan and Conservative candidate Zac Goldsmith is resonant in a city where soaring property prices are increasing income disparities.(AP Photo/Frank Augstein)

গত শুক্রবার প্রকাশিত ফলাফলে দেখা যায় যে, লন্ডন অ্যাসেম্বলির ১৪টি আসনের আটটিতে বড় ব্যবধানে জয় পেয়েছেন বিরোধী দল লেবার পার্টির প্রার্থী সাদিক খান। তিনি পেয়েছেন ৫৬ দশমিক ৮ শতাংশ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জ্যাক পেয়েছেন ৪৩ দশমিক ২ শতাংশ ভোট। সাদিক খানের এই বিজয়ের কারণে সিটি হলে কনজারভেটিভ পার্টির দীর্ঘ ৮ বছরের রাজত্বের অবসান ঘটলো।

সাদিক খান শুধুমাত্র লন্ডনই নয়, ইউরোপের কোন দেশের রাজধানীর প্রথম মেয়র নির্বাচিত হলেন। সাদিক খানের বাবা ছিলেন একজন বাস ড্রাইভার। তিনি পাকিস্তান হতে ব্রিটেনে আসেন অভিবাসী হয়ে। লেবার পার্টির রাজনীতিতে যুক্ত হওয়ার আগে সাদিক খান একজন মানবাধিকার আইনজীবী হিসেবে কাজ করতেন।

নির্বাচনের ফল ঘোষণার পর সাদিক খান তার প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, তার মতো এমন কেও লন্ডনের মেয়র নির্বাচিত হতে পারে তা তিনি কখনও স্বপ্নেও ভাবিনি।

Advertisements
Loading...