ব্রেকিং নিউজ: মুদ্রা পাচার মামলায় হাইকোর্টে তারেকের ৭ বছর জেল

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বহুল আলোচিত মুদ্রা পাচার মামলায় খালাসের রায় বাতিল করে হাইকোর্ট তারেক রহমানকে ৭ বছরের জেল ও তারেকের বন্ধু, ব্যবসায়িক অংশীদার গিয়াসউদ্দিন আল মামুনের ৭ বছরের কারাদণ্ডও বহাল রেখেছে।

Tarek

মামুনের আপিল খারিজ এবং দুদকের আপিল মঞ্জুর করে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি আমির হোসেনের হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ (বৃহস্পতিবার) আলোচিত এই মামলার রায় ঘোষণা করেছে।

সেই সঙ্গে তারেকের বন্ধু এবং ব্যবসায়িক অংশীদর গিয়াসউদ্দিন আল মামুনের ৭ বছরের কারাদণ্ডও বহাল রাখা হয়েছে। তবে বিচারিক আদালতের দেওয়া ৪০ কোটি টাকা অর্থদণ্ড কমিয়ে ২০ কোটি টাকা করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ঘুষ হিসেবে আদায়ের পর ২০ কোটি টাকা বিদেশে পাচারের অভিযোগে করা মামলার রায়ে ঢাকার তৃতীয় বিশেষ জজ মো: মোতাহার হোসেন ২০১৩ সালের ১৭ নভেম্বর তারেক রহমানকে বেকসুর খালাস দেন। অপরদিকে গিয়াসউদ্দিন আল মামুনকে দেওয়া হয়েছিল ৭ বছর কারাদণ্ড ও ৪০ কোটি টাকা জরিমানা।

খালেদা জিয়ার ছেলে বিএনপির জ্যেষ্ঠ ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে বিভিন্ন মামলা রয়েছে। তিনি ২০০৮ সাল হতে যুক্তরাজ্যে অবস্থান করছেন। শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টাসহ আরও দুর্নীতি, রাষ্ট্রদ্রোহ ও মানহানীর অভিযোগে কয়েক ডজন মামলা রয়েছে তারেক রহমানের বিরুদ্ধে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...