এক বিলাসবহুল কারাগারের গল্প!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আজ আপনাদের জন্য রয়েছে এক বিলাসবহুল কারাগারের গল্প! এটি দেখলে আপনার হয়তো বিশ্বাস হবে না। প্রশ্ন জাগবে আসলেও এটি কী কারাগার?

NINTCHDBPICT000255598219

এটি দেখলে কারাগার মনে হবে না, মনে হবে যেনো বিলাসিতার এক স্বর্গরাজ্য! এক কথায় যেনোতেনো বিলাসিতা নয়, রাজকীয় বিলাসিতা। কনফারেন্স রুম হতে শুরু করে প্লাজমা টিভি, লাইব্রেরি, কিচেন, শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত শোবার ঘর, বিলাসবহুল আসবাবপত্র- সবকিছুই রয়েছে এই কারাগারে!

তিন কক্ষবিশিষ্ট এই সেলটিকে পুরোপুরিভাবে পাল্টে দিয়েছেন ব্রাজিলের মাদকসম্রাট জার্ভিস শিমেন্স পাভাও। প্যারাগুয়ের একটি কারাগারে বন্দী থাকা অবস্থায় নিজের এই স্বর্গরাজ্য গড়ে তুলেছেন মাদকসম্রাট জার্ভিস শিমেন্স পাভাও। শুধু তাই নয়, কারাগারের অন্য বন্দীরা বলেছেন, অর্থের বিনিময়ে নিজের কক্ষও নাকি ভাড়া দিতেন পাভাও। এক মাসের জন্য একজন বন্দীকে গুনতে হতো ৫ হাজার ডলার (৩ লাখ ৯০ হাজার টাকা)!

story of a luxurious prison-2

তবে দেশটির গণমাধ্যমগুলো বলেছে, পাভাওয়ের সেলগুলো ইতিমধ্যে ভেঙে ফেলা হয়েছে। মাদকসম্রাট পাভাও নাকি পালানোর পরিকল্পনা করছেন- এমন সংবাদের ভিত্তিতে সেখানে অভিযান চালিয়ে এই বিলাসি রাজ্যের সন্ধান পেয়েছে পুলিশ। মানি লন্ডারিং মামলায় কারাদণ্ড ভোগ করছেন পাভাও। আগামী বছর তার মুক্তি পাওয়ার কথা।

তবে এই বিষয়টি নিয়ে অনুসন্ধান শুরু করেছে প্যারাগুয়ের পুলিশ। পাভাওয়ের এক সহবন্দী বলেছেন, কারাগারে পাভাও সবচেয়ে পছন্দের লোক।

Advertisements
Loading...