‘দেহব্যবসার’ খবর প্রকাশের জন্য মামলা করলেন পাখি

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বাংলাদেশের কিছু ওয়েবসাইটে কোলকাতার অভিনেত্রী মধুমিতা চক্রবর্তীকে নিয়ে দেহব্যবসার খবর ছাপানোর অভিযোগে ভারতের লালবাজার পুলিশ স্টেশনে মামলা করেছেন পাখি ওরফে মধুমিতা চক্রবর্তী।

Pakhi

পোর্টালগুলোতে খবর প্রকাশ করা হয় যে, দেহব্যবসা করতে গিয়ে গোয়ার হোটেল হতে ‘বোঝে না সে বোঝে না’ সিরিয়ালের ‘পাখি’ গ্রেফতার হয়েছেন। শুধু এই মিথ্যা খবর প্রচারই নয়, মধুমিতার বেশ কিছু ছবিও বিকৃত করে ওইসব সাইটে তোলা হয়েছিল বলে অভিযোগ করেছেন তিনি।

শুক্রবার সকালে ভারতের লালবাজারে জয়েন্ট সিপি হেডকোয়ার্টারের সঙ্গে দেখা করে অভিযোগ জানান মধুমিতা চক্রবর্তী। এসময় মধুমিতার স্বামী অভিনেতা সৌরভ চক্রবর্তী সঙ্গে ছিলেন। পুলিশের হাতে তার বিকৃত হওয়া ছবিগুলোও তুলে দিয়েছেন তারা। চক্রান্তের অভিযোগ তুলে তথ্যপ্রযুক্তি ধারায় মামলা করেছেন তিনি।

Pakhi-2

পুলিশ সূত্রে বলা হয়েছে, আইপি অ্যাড্রেস ধরে ইতিমধ্যেই তদন্ত প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। কোন কোন ওয়েবপোর্টাল হতে ওই খবর বা ছবি আপলোড হয়েছে, কারা এটা করেছেন তা বের করার চেষ্টা চলছে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে দোষী ব্যক্তিদের গ্রেফতার করা হবে।

মধুমিতা (পাখি) বলেছেন, ‘যারা এমন কাজ করেছে তারা ক্রিমিনাল। তাদের উপযুক্ত শাস্তি হওয়া উচিত। আজ যেটা আমার সঙ্গে হয়েছে, কাল সেটা অন্য কারও সঙ্গেও হতে পারে। এদের সাহস হয় কী করে এমনটা করার? আমি এই কার্লপ্রিটদের ধরতে চাই।’

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম এবেলা ভুয়া খবর এবং মামলার কথা জানালেও কোনো ওয়েবসাইটের নাম তারা উল্লেখ করেনি।

‘বোঝে না সে বোঝে না’ সিরিয়ালে ‘পাখি’ চরিত্রে অভিনয় করে শুধু ভারত নয়, বাংলাদেশে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পান পাখি ওরফে মধুমিতা। তবে বাংলাদেশের প্রথম সারির কোনো অনলাইনে দেহব্যবসার এই খবর ছাপানোর প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

এবেলার ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের কিছু ওয়েবসাইট ‘দেহব্যবসার কারণে গোয়ায় মধুমিতা গ্রেফতার হয়েছেন’ এমন খবর প্রকাশ করে। ১৪ আগস্ট ওই খবরটি প্রকাশিত হয়। সূত্র হিসেবে একটি ভারতীয় সংবাদপত্রের নাম উল্লেখ করা হলেও ওই সংবাদপত্রে ওই তারিখে এমন কোনো খবর আদতেও প্রকাশিত হয়নি।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...