৮২ বছর পর এক মা তার মেয়েকে খুঁজে পেলেন!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মা তার সন্তানকে নিজের প্রাণের থেকেও বেশি ভালোবাসেন। কিন্তু সেই সন্তান যদি কাছে না থাকে তখন মায়ের জন্য এক যন্ত্রণাদায়ক বিষয় হয়। ৮২ বছর পর এক মা তার মেয়েকে খুঁজে পেয়ে আত্মহারা!

82 years later, mother regained daughter

একজন মা সন্তান জন্ম দেওয়ার সময় কতোটা যন্ত্রণা সহ্য করতে হয় তা একমাত্র ওই ম ‘ই ভালো জানেন। আর জন্ম দেওয়ার পর যখন সন্তানের মুখ দেখেন তখন সেই প্রসব ব্যথার কথা বেমালুম ভুলে যান একজন মা। সন্তান ছেলে হোক বা মেয়ে হোক মার কাছে দু’জনাই সমান।

সন্তানকে ভালো রাখার চেষ্টা করেন মা সব সময়ই। তবে অনেক সময় পারিবারিক ঝামেলার কারণে সন্তানকে এতিমখানা কিংবা দত্তক দিতে বাধ্য হন অনেক বাব-মা। তবে সেটিও সন্তানের ভালোর জন্যই। যেনো দূর হতে হলেও দেখতে পারেন নিজের সন্তান ভালো আছে।

এমনই এক অনিবার্য কারণে নিজের সন্তানের মুখ ৮২ বছর দেখতে পারেননি নিউইয়র্কের এক প্রায় শতবর্ষী এক নারী। ৮ দশক পর মেয়ের দেখা পেলেন মা। তার মেয়ে এখন ৮২ বছরের বৃদ্ধা!

সেই ১৯৩৩ সালের কথা। মাত্র ১৪/১৫ বছর বয়সে মা হয়েছিলেন লিনা পের্সি নামে ওই নারী। তার মেয়ের নাম রেখেছিলেন ইভা মে। তবে এতো ছোট বয়সে সন্তান দেখাশোনা করা সম্ভব নয় বলে ছোট্ট ইভাকে নিয়ে যাওয়া হয় একটি হোমে। ইভার বয়স ছিল তখন মাত্র ৬ মাস। পরে সেই হোম থেকে ইভাকে এক দম্পতি দত্তক নেন। তারা ইভার নতুন নাম রাখেন বিটি মরেল।

এরপর ইভার মায়ের পূর্বের সংসার ভেঙে যায়। নতুন করে বিয়েও হয়ে যায় তার। এই ঘরেও ৭টি সন্তান হয় লিনার। তবে তিনি প্রথম সন্তানের কথা ভুলতে পারেননি। এরপর ইভার সঙ্গে দেখা করার জন্য চেষ্টা করেন লিনা। ইভার দত্তক বাবা-মাও তার ২০ বছর বয়সে পরপারে চলে যান। একা হয়ে যান ইভা। পরে ইভাও তার মাকে খুঁজতে থাকেন।

হোমেও যান ইভা। ৮২ বছর পর নতুন করে শুরু হয় বিটি হতে ইভা হওয়ার লড়াই।
অবশেষে একদিন ইভা তার মা লিনাকে খুঁজে পেলেন। তার মা এখনও বেঁচে রয়েছেন জানতে পেরে অবাক হন ইভা। অবশেষে ৮২ বছর পর নিউইয়র্ক বিমানবন্দরে দেখা হলো মা-মেয়ের। সে এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারণা!

Advertisements
Loading...