‘মরে গিয়েও, আবার বেঁচে উঠেছি’: জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট মুগাবে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বিশ্বের সবচেয়ে বেশি বয়স্ক প্রেসিডেন্ট জিম্বাবুয়ের রবার্ট মুগাবের অনুপস্থিতিতে মৃত্যুর গুঞ্জন দানা বাঁধে। ব্যক্তিগত কাজ সেরে দুবাই হতে ফিরে বিমানবন্দরেই তিনি বলেন, ‘মরে গিয়েও, আবার বেঁচে উঠেছি’।

Mugabe

তার মৃত্যুর গুঞ্জন সম্পর্কে ঠাট্টা করে মুগাবে বলেন, ‘আমি মারা গিয়েছিলাম, আবার বেঁচে উঠেছি।’জিম্বাবুয়ের হারারেতে দেশটির প্রধান বিমানবন্দরে মুগাবেকে এ সময় অনেকটা উৎফুল্ল দেখাচ্ছিল।

৯২ বছর বয়সী মুগাবে আরও বলেন, তিনি পারিবারিক কারণে দুবাই গিয়েছিলেন। গত মে মাসে মুগাবের স্ত্রী গ্রেস বলেছিলেন, ‘রবার্ট মুগাবে কবরে গেলেও, প্রয়োজনে সেখান থেকে দেশ শাসন করবেন।’

বিমানের তথ্য রেকর্ড অনুযায়ী বিমানটি পূর্বএশিয়ার দিকে যাচ্ছিল। তবে তার বদলে বিমানটি দুবাই গেলে নানা জল্পনা দেখা দেয়। গুজব ছড়িয়ে পড়ে যে, তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছেন ও চিকিৎসা নিতে দুবাই গেছেন। এমনকি তিনি মারা গেছেন বলেও খবর ছড়িয়ে পড়ে। সার্দার ডেইলি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক নিবন্ধে লেখা হয়, ‘রবার্ট মুগাবে স্ট্রোকে আক্রান্ত। আর তাই জিম্বাবুয়ের অর্ন্তবর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট হয়েছেন এম্নানগাগুয়া।’

বর্তমানে দেশটির ভাইস-প্রেসিডেন্ট এমারসন এম্নানগাগুয়া। হারারে বিমানবন্দরে নামার পর জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট মুগাবে স্থানীয় ভাষায় সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমার এক সন্তানের বিষয়ে পারিবারিক কারণে আমি দুবাই গিয়েছিলাম।’

উল্লেখ্য, ১৯৮০ সাল হতে জিম্বাবুয়ে ক্ষমতায় রয়েছেন প্রেসিডেন্ট মুগাবে। তিনি বলেছেন, ২০১৮ সাল পর্যন্ত তিনি ক্ষমতায় থাকবেন।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...