মিয়ানমারে খনিশ্রমিকরা পেয়েছেন ১৩৩৬ কোটি টাকার রত্ন!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মিয়ানমারের কচিন প্রদেশের একটি খনিতে কাজ করার সময় শ্রমিকরা পেয়েছেন ১৩৩৬ কোটি টাকার রত্ন! হঠাৎই করেই তারা খুঁজে পান মহামূল্যবান এক রত্ন খণ্ড।

myanmar-gem-miners

স্থানীয় শ্রমিকরা যখন এই মহামূল্যবান এক রত্ন খণ্ড পান তখন সেই মুহূর্তে খনির শ্রমিকদের মনে হয়েছিল, তারা যেনো একটি লটারি পেয়ে গেছেন। কারণ হলো গোটা দেশের জন্যই এই পাথর খণ্ডটি একটি অমূল্য সম্পদ।

প্রায় ১৮ ফুট আয়তনের সবুজ এই জেড পাথর খণ্ডের আনুমানিক মূল্য ধরা হয়েছে ১৪০ মিলিয়ন পাউন্ড। যা বাংলাদেশী মুদ্রায় দাঁড়াচ্ছে ১ হাজার ৩৩৬ কোটি টাকারও বেশি! পাথর খণ্ডটির ওজন ১৭৫ টন। এটির উচ্চতা ৯ ফুট।

ডেইলি মেইলে ওই পাথক খণ্ডটির ছবি প্রকাশিত হয়। তাতে দেখা যায়, স্থানীয় রাজনীতিবিদ উ টিন্ট সু পাথরখণ্ডটির সামনে দাঁড়িয়ে রয়েছেন। সেখানে পাথর খণ্ডটির পাশে তাঁকে বেশ ক্ষুদ্রই দেখাচ্ছে। দেখতে সাধারণ পাথর খণ্ডের মতো মনে হলেও পরিষ্কার করা হলে এই পাথর খণ্ডটির চমৎকার সবুজ রং দেখা যায়। সাধারণ কোনো পাথর খণ্ডের মতো নয় এটি।

স্থানীয় ওই রাজনীতিবিদ টিন্ট সু বলেন, এটা তাঁদের দেশের জনগণের জন্য প্রকৃতির একটি বড় উপহার। এটি তাঁদের সরকারের জন্য একটি ভালো লক্ষণ বলেও মনে করেন তিনি। অবশ্য এটিকে বিশ্বের সবচেয়ে বড় মূল্যবান রত্ন বলা যাবে না। এর কারণ হলো ২৬০ টন ওজন নিয়ে আগেই বিশ্বের সবচেয়ে বড় মূল্যবান রত্ন রেকর্ডে অবস্থান করছে চীন।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...