‘ডুব’ নিয়ে ইরফান খান যা বললেন

বর্তমান সময়ে চলচ্চিত্রাঙ্গনে সবচয়ে আলোচিত ছবি হলো ‘ডুব’

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বর্তমান সময়ে চলচ্চিত্রাঙ্গনে সবচয়ে আলোচিত ছবি হলো ‘ডুব’। ইতিমধ্যেই সেন্সর বোর্ড কর্তৃক সাময়িক নিষিদ্ধ হয়েছে ছবিটি। অনেক আলোচনার পর এবার ‘ডুব’ সম্পর্কে ইরফান কী বললেন? জেনে নিন।

‘ডুব’ সিনেমাটি নিয়ে বিতর্কের শেষ নেই। অবশেষে এই ছবির বিষয়ে মুখ খুললেন ভারতীয় অভিনেতা ইরফান খান। মোস্তফা সরয়ার ফারুকী পরিচালিত ‘ডুব’ সিনেমাটি যৌথ প্রযোজনা প্রিভিউ কমিটি সাময়িকভাবে স্থগিত করে।

তারপর এই সিনেমাটি নিয়ে শুরু হয় বিতর্ক। এই সিনেমায় কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা ইরফান খান। তবে এতোদিন বিষয়টি নিয়ে কিছুই বলেননি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ‘মিড-ডে’ তে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে বলা হয়, এই প্রসঙ্গে ইরফান খান বলেছেন, ‘আমি এই সিদ্ধান্তে সত্যিই আশ্চর্য হয়েছি। সিনেমাটি মানুষের আবেগকে কেন্দ্র করে নির্মিত, একজন পুরুষ এবং একজন নারীর মধ্যে সম্পর্ক নিয়ে তৈরি। এমন একটি সিনেমা কী করে সমাজের ক্ষতির কারণ হয়?’

জানা গেছে, ‘ডুব’ সিনেমায় ইরফান খানের চরিত্রের নাম জাভেদ হাসান। তিনি মূলত একজন চলচ্চিত্র নির্মাতার চরিত্রে অভিনয় করেছেন। যিনি তার স্ত্রীকে ছেড়ে দিয়ে একজন অভিনেত্রীকে বিয়ে করেন। এমনকি যে অভিনেত্রীকে তিনি বিয়ে করেন সে তার মেয়ের বান্ধবী। যা অনেকটা হুমায়ূন আহমেদের ব্যক্তিগত জীবনের সঙ্গে মিলে গেছে।

এদিকে সিনেমাটি সেন্সর বোর্ডে জমা দেওয়ার আগেই পরিচালক-অভিনেত্রী মেহের আফরোজ শাওন সিনেমাটি নিয়ে সেন্সর বোর্ডে একটি চিঠি পাঠান। শাওন সেন্সর বোর্ডে পাঠানো ওই চিঠিতে ‘ডুব’ সিনেমা জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের জীবনী অবলম্বনে তৈরি করা হয়েছে বলে উল্লেখ করে তিনি বিষয়টি সেন্সর বোর্ড কর্তৃপক্ষের নজরে নেওয়ার অনুরোধ জানান। এতে পরিবারের কারো অনুমতি নেওয়া হয়নি বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

‘ডুব’ ছবিটির শুটিং অনেক আগেই শেষ হয়েছে। মুক্তির জন্য সব প্রস্তুতিও প্রায় শেষের দিকে। এমন অবস্থায় গত বছরের ৪ নভেম্বর কোলকাতার একটি শীর্ষ দৈনিক ‘হুমায়ূন আহমেদের চরিত্রে ইরফান? তবে এতো লুকোছাপা কেনো?’ শিরোনামে প্রকাশিত একটি খবরে পাল্টে যায় পুরো দৃশ্যপট। এরপর হতে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে উঠে আসে ‘ডুব’ ছবিটি নিয়ে হুমায়ূন আহমেদের বায়োপিক, যা এখনও বিদ্যমান।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...