বিক্রমকে ছাড়া কীভাবে চলবে স্টার জলসার ইচ্ছেনদী?

ইচ্ছেনদী ধারাবাহিকের শ্যুটিংয়ে তাঁর অনুপস্থিতি সামাল দিতে গল্পে একটু পরিবর্তন আনা হয়েছে। বিক্রমের মাথার চোট এখনও সম্পূর্ণভাবে সারেনি

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ২৯ এপ্রিল রাতে দুর্ঘটনার পরে বেশ কিছুদিন হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন স্টার জলসার ইচ্ছেনদী ধারাবাহিকের জনপ্রিয় অভিনেতা বিক্রম চট্টোপাধ্যায়। বিক্রমকে ছাড়াই কীভাবে চলবে ইচ্ছেনদী?

ইচ্ছেনদী ধারাবাহিকের শ্যুটিংয়ে তাঁর অনুপস্থিতি সামাল দিতে গল্পে একটু পরিবর্তন আনা হয়েছে। বিক্রমের মাথার চোট এখনও সম্পূর্ণভাবে সারেনি।

তবে বিষয়টি সামাল দিতে আপাতত ধারাবাহিকটিতেও তাই বিক্রমের দুর্ঘটনার প্রসঙ্গটি আনা হয়েছে। তবে বিক্রমের সঙ্গে একই গাড়িতে দুর্ঘটনায় সনিকার মৃত্যু তদন্ত ক্রমশই জটিলতর হয়ে উঠছে।

প্রতিদিনই নতুন নতুন তথ্য উঠে আসছে। ইতিমধ্যেই দু’বার পুলিশের জেরার মুখে পড়েছেন বিক্রম চট্টোপাধ্যায়। যে কোন সময় তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হতে পারে।

এমন এক পরিস্থতিতে বিক্রমকে ছাড়াই কি এগিয়ে যাবে ইচ্ছেনদী? ধারাবাহিকের প্রযোজক-চিত্রনাট্যকার লীনা গঙ্গোপাধ্যায় জানালেন, ‘বিক্রম তো এর মধ্যে দু’দিন শ্যুটিংও করেছে। এখন ওই বাড়িতে ছোটছেলের বিয়ে। সেখানে বিক্রম অ্যাভেলেবল হলে কাজ করা হবে, অ্যাভেলেবল না হলে কাজ করবো না। তাতে আমার গল্পের দিক থেকে কোনও অসুবিধা হবে না।’

ইতিমধ্যেই দর্শকরা দেখেছেন হাসপাতালে শায়িত অবস্থায় মেঘলার সঙ্গে। এই দৃশ্যটি দেখার জন্য দর্শকদের আগ্রহ ছিলো।

লীনা গঙ্গোপাধ্যায়ের বক্তব্য অনুযায়ী জানা যায়, বিক্রম যেহেতু চ্যানেল কনট্র্যাক্টে রয়েছেন, তাই সিদ্ধান্তটি মূলত চ্যানেলেরই। স্টার জলসা যদি বিক্রমকে নিয়ে কাজ করতে চায় ও বিক্রম যদি প্রযোজক সংস্থাকে জানান যে, তিনি শ্যুটিংয়ে আসবেন, তবেই তাঁকে প্রোডাকশন টিম হতে কল টাইম দেওয়া হবে।

তিনি আরও জানান যে, বিক্রমকে ছাড়া কাজ করতে হলেও তাঁর দিক থেকে তেমন কোনো অসুবিধা নেই। কারণ ইতিমধ্যেই তাঁকে ছাড়াই বেশ কয়েকদিন শ্যুটিংও হয়েছে। তবে বিক্রম (অনুরাগ) ছাড়া ইচ্ছেনদী আগের মতো দর্শক টানতে পারবে কি না এই বিষয়ে বর্তমানে কিছুই বলতে চাইছেন না চ্যানেল কর্তৃপক্ষ।

তবে টিআরপি তালিকা প্রকাশ পাওয়ার পরে দেখা গেছে যে, এক সপ্তাহে বেড়ে গেছে ইচ্ছেনদীর টিআরপি। অর্থাৎ যাঁরা এই ধারাবাহিকটি নিয়মিত দেখতেন না, দুর্ঘটনার খবরের পর কহতে এবং সাম্প্রতিক ঘটনাবলির কারণে তাঁরাও ওই স্লটে টেলিভিশনের পর্দায় আসছেন।

তবে সত্যিই যদি বিক্রমকে ছাড়াই এগিয়ে যেতে হয় ইচ্ছেনদীকে, তবে কি নতুন কোনও নায়ককে আনা হবে এই ধারাবাহিকে? সে বিষয়ে অবশ্য কিছুদিন পরেই স্পষ্ট হবে। এর একটি কারণ হলো সড়ক দুর্ঘটনার বিষয়ে মামলা মোকাদ্দমার বিষয়ও রয়েছে। তবে সময়ই বলে দেবে আসলে কি হতে চলেছে।

উল্লেখ্য, স্টার জলসার এই ইচ্ছেনদী সিরিজটি বাংলাদেশেও ব্যাপক জনপ্রিয়।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন

Loading...