ঈদের ছুটিতে কোলকাতা ভ্রমণ কিভাবে আনন্দদায়ক করবেন

ঢাকা হতে এখন খুলনা হয়ে সরাসরি কোলকাতার বাস রয়েছে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আপনি কী ঈদের ছুটিতে কোলকাতা যাওয়ার কথা ভাবছেন? যদি ভেবে থাকেন তাহলে সেটি অবশ্যই আনন্দদায়ক হতে পারে। এজন্য আপনাকে বেশ কিছু পদক্ষেপ নিতে হবে। তাহলে আপনার এই ছুটির সময়টি উপভোগ্য হবে।

ঢাকা হতে এখন খুলনা হয়ে সরাসরি কোলকাতার বাস রয়েছে। বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশনের (বিআরটিসি) সহযোগিতায় বেসরকারি গ্রিনলাইন পরিবহন ঢাকা হতে এই সার্ভিস চালু করেছে।

ঢাকা মাওয়া হয়ে কোলকাতায় যাওয়া এটাই প্রথম বাস সার্ভিস। এতে করে বাস পরিবর্তনের কোনোই ঝামেলা নেই। খুলনা হয়ে বেনাপোল, তারপর একই বাসে কোলকাতা যাওয়া যাবে। খুলনা হতেও যাত্রীরা বাসে উঠতে পারবেন। যদিও মাওয়া হয়ে সড়ক পথে দূরত্ব একটু বেশি। অবশ্য পদ্মা সেতু চালু হওয়ার পর সেই বিড়ম্বনা থাকবে না আর।

বিআরটিসি এবং গ্রিনলাইন পরিবহন যৌথ উদ্যোগে সপ্তাহে একদিন পর পর এই বাস ঢাকা-খুলনা-কোলকাতার মধ্যে সরাসরি চলাচল করছে। সপ্তাহে প্রতি সোম, বুধ এবং শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭টায় কমলাপুর বিআটিসি বাস টার্মিনাল হতে ছেড়ে যাবে এই বাস। বেলা দেড়টায় বাসটি খুলনায় পৌঁছার পর যাত্রীদের খাবার ও বিশ্রামের জন্য ২০-২৫ মিনিট সময় দেওয়া হয়।

খুলনা নগরীর রয়্যাল মোড় হতে বেলা ২টায় বাসটি কোলকাতার উদ্দেশে রওনা হবে। আর বেনাপোলে পৌঁছাবে বিকেল ৪টায়। দু‘পারের ইমিগ্রেশন এবং কাস্টমসের কাজ শেষ করে রাত ৮টার দিকে কোলকাতার সল্টলেক করুণাময়ী আন্তর্জাতিক বাস টার্মিনালে গিয়ে পৌঁছানোর কথা।

ঠিক একইভাবে কোলকাতার সল্টলেক করুণাময়ী বাস টার্মিনাল হতে প্রতি মঙ্গল, বৃহস্পতি এবং শনিবার সকাল সাড়ে ৭টায় ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে আসবে। রাত ৮টার দিকে বাসটি ঢাকায় এসে পৌঁছাবে। জানা গেছে, ৪০ সিটের এই বাসটিতে ঢাকা হতে ৩৬টি ও খুলনা হতে ৪টি আসনে যাত্রী নেওয়া হবে।

সব মিলিয়ে প্রায় ৯ দিনের ছুটি মিলেছে এবারের ঈদে। যে কারণে এই সময়টিতে আপনি দেশের বাইরে যাওয়ার এই সুযোগটি কাজে লাগাতে পারেন। কোলকাতা গেলে সেখান থেকে আপনি যেতে পারেন দার্জিলিং, আগ্রার তাজমহলে, কাশ্মীর কিংবা আরও অনেকগুলো স্থানে। এই ঈদের পর কোলকাতায় গেলে আপনার ঈদের ছুটির সঠিক ব্যবহার হবে তাতে সন্দেহ নেই। সেইসঙ্গে আপনার মন মানষিকতার বেশ পরিবর্তন আসবে। কারণ দেশের বাইরে ছুটির সময় কাটানোর মজায় আলাদা। আপনিও এই সুযোগটি নিতে পারেন।

Advertisements
Loading...