মিশরের পিরামিড সম্পর্কে এই তথ্যগুলি জানেন কি?

ধারণা করা হয়, পিরামিডগুলি বানাতে কাজ করেছিলো প্রায় ১ লক্ষ শ্রমিক

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ রহস্যে ঘেরা প্রাচীন মিশরের আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু হল পিরামিড। প্রাচীন এই পিরামিড সম্পর্কে আগ্রহী হলে জেনে নিতে পারেন এ সম্পর্কিত কিছু চমকপ্রদ তথ্য।

যতো জানতে চেষ্টা করবেন পিরামিড সম্পর্কে ততোই আপনি বিস্মিত হবেন-

  • আমরা মূলত গিজার ৩টি পিরামিড দেখে অভ্যস্ত হলেও মিশরে এ পর্যন্ত খুঁজে পাওয়া পিরামিডের সংখ্যা ১৪০।
  • সবচেয়ে প্রাচীন পিরামিড হল ডোসার পিরামিড। এটি খ্রীষ্টপূর্ব ২৭ শতকে নির্মাণ করা হয়।
  • সর্ববৃহৎ পিরামিড হল গিজার মিরামিড। এর উচ্চতা ছিল ৪৮১ ফিট।
  • প্রাচীন বিশ্বের সপ্তম আশ্চর্যের ভিতর গিজার পিরামিড সবচেয়ে পুরানো।
  • ধারণা করা হয়, পিরামিডগুলি বানাতে কাজ করেছিলো প্রায় ১ লক্ষ শ্রমিক।
  • এ পর্যন্ত পরিচালিত গবেষণা মতে, পিরামিডের প্রথম আর্কিটেক্ট হলেন ইমহোটেপ। তিনি একাধারে একজন পদার্থ বিজ্ঞানী ও প্রকৌশলী ছিলেন।
  • পিরামিডে ব্যবহৃত বিশাল আকারের পাথর খন্ডগুলি কিভাবে বহন করে এনে স্থাপন করে হয়েছিল, সে ব্যাপারে এখনো অব্দি কোনো সঠিক ধারণা পাননি গবেষকরা।
  • ১২শ শতাব্দীতে আল আজিজ নামক একজন কুর্দিশ শাসক গিজার পিরামিডগুলি ধ্বংস করার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তিনি ব্যর্থ হন।
Advertisements
Loading...