কাঁচা মরিচের পুষ্টিগুণ

কাঁচা মরিচ শরীরে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ খাবারের স্বাদ বাড়াতে রান্নায় কাঁচা মরিচ আমরা সবাই ব্যবহার করে থাকি। কিন্ত কাঁচা মরিচের উপকারিতা শুধু এর স্বাদের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয়। এর রয়েছে অনেক পুষ্টিগুণ।

কিছু কিছু খাদ্য উপাদানের সাথে আমরা এতোটাই অভ্যস্ত হয়ে যাই যে সেগুলির পুষ্টিগুণ সম্পর্কে জানার কথা আমাদের হয়তো মনেই থাকে না। কাঁচা মরিচ এমনই একটি জিনিস। আসুন, তাহলে এটির পুষ্টিগুণ সম্পর্কে কিছু জেনে নিই।

ক্যান্সার প্রতিরোধী

কাঁচা মরিচে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকার কারণে তা শরীরের জন্য ক্ষতিকর ফ্রি র‍্যাডিক্যাল থেকে আমাদের সুরক্ষা যোগায়। প্রোস্টেটের সমস্যা দূর করতেও সাহায্য করে মরিচ।

চোখ ও ত্বকের জন্য উপকারী

বেশি পরিমাণে ভিটামিন সি ও বেটা ক্যারোটিন বিদ্যমান থাকায় চোখ ও ত্বকের জন্য কাঁচা মরিচ অত্যন্ত উপকারী। তবে দীর্ঘক্ষণ তাপ, আলো ও বাতাসের সংস্পর্শে থাকলে মরিচের ভিটামিন সি নষ্ট হয়ে যায়। তাই এ ব্যাপারে সাবধান থাকতে হবে।

শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে

গবেষণায় দেখা গেছে, কাঁচা মরিচ শরীরে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। ফলে ডায়াবেটিসের রোগীদের জন্য এটি অত্যন্ত উপকারী।

ইনফেকশন রোধকারী

কাঁচা মরিচে ইনফেকশনরোধী উপাদান থাকায় তা ত্বকের নানা ধরনের ইনফেকশন প্রতিরোধ করে।

আয়রন সমৃদ্ধ

আয়রন কাঁচা মরিচের একটি প্রধান পুষ্টি উপাদান। তাই শরীরে আয়রনের অভাব থাকলে এটি গ্রহণ করলে উপকার পাওয়া যায়।

ব্যথানাশক

কাঁচা মরিচ গ্রহণ করার পর এটি থেকে এন্ডোরফিন নামক এক ধরনের উপাদান নিঃসরিত হয়, যা শরীরের ব্যথা উপশমে সাহায্য করে থাকে।

Advertisements
Loading...