বিলাসবহুল অবকাশ যাপন কেন্দ্র তৈরির পরিকল্পনা সৌদি আরবের

কিছু কিছু ধর্মীয় বিষয়ে সৌদি আরব বর্তমানে নমনীয়

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সৌদি আরব বিলাসবহুল অবকাশ যাপন কেন্দ্র তৈরির পরিকল্পনা করেছে। লোহিত সাগরের ৫০টি দ্বীপ এবং অন্যান্য স্থাপনা নিয়ে বিলাসবহুল অবকাশ যাপন কেন্দ্র গড়ে তোলার পরিকল্পনা করেছে দেশটি।

সৌদি আরব পর্যটনের উন্নয়নে একটি বিশাল প্রকল্প হাতে নিয়েছে। এই পরিকল্পনায় লোহিত সাগরের ৫০টি দ্বীপ এবং অন্যান্য স্থাপনা নিয়ে বিলাসবহুল অবকাশ যাপন কেন্দ্র গড়ে তোলা হচ্ছে।

আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমের খবরে জানা যায়, তেলের দর পতনে ধুঁকতে থাকা অর্থনীতিতে বৈচিত্র্য আনার পদক্ষেপের অংশ হিসেবে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে সৌদি আরব। এতে করে দেশি-বিদেশি পর্যটকদের আকৃষ্ট করবে বলে আশা করছে দেশটি। সেক্ষেত্রে পর্যটন এলাকায় বিদেশিদের জন্য ভিসার বিধিনিষেধও শিথিল করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

কিন্তু সংক্ষিপ্ত পোশাক ও অন্যান্য বিষয়ে ছাড় দেওয়া হবে কি না সে বিষয়টি এখনও স্পষ্ট করে কিছু জানানো হয়নি। বর্তমানে সৌদি আরবে অ্যালকোহল (মদ), চলচ্চিত্র এবং নাটক নিষিদ্ধ।

সৌদি আরবে নারীদের বাইরে বেরোতে হলে গলা হতে পা পর্যন্ত লম্বা ঢিলেঢালা (আলখাল্লা) পোশাক পরতে হয়। আবার মুসলিম হলে থাকতে হয় স্কার্ফ।

কিছু কিছু ধর্মীয় বিষয়ে সৌদি আরব বর্তমানে নমনীয়। নারীদের গাড়ি চালানোর অনুমতি এতোদিন না থাকলেও এখন তা শিথিল করা হয়েছে। লেখাপড়া বা ঘুরতে কোথাও যেতে হলে পুরুষ অভিভাবকের অনুমতি লাগতো এতো দিন। সে আইনও শিথিল করা হয়েছে।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়, সৌদি আরবের নতুন অবকাশ যাপন কেন্দ্র নির্মাণের কাজ আগামী বছর শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। পরিকল্পনার অংশ হিসেবে প্রথম পর্যায়ে একটি নতুন বিমানবন্দর, বিলাসবহুল হোটেল এবং ঘর নির্মাণ করা হবে। ২০২২ সালের মধ্যে এই পর্যায়ের কাজ শেষ করার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে দেশটি।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...