উপভোগ করুন বিশ্বের প্রথম খাড়া রেল লাইন!

দেখতে সত্যিই এক ভয়াবহ সুন্দর!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ রেললাইন দেখা গেছে পাহাড়-পর্বত বা মাটির নিচের সুরঙ্গে। তবে আজ উপভোগ করুন বিশ্বের প্রথম খাড়া রেল লাইন! এই খাড়া রেল লাইনটি সুইজারল্যান্ডে অবিস্থত।

দেখতে সত্যিই এক ভয়াবহ সুন্দর! এটির জন্য সম্ভবত এমন বিশেষণই মানায়। কারণ যেমন ভয়াবহ তেমনি সুন্দর দুই রয়েছে এতে। সুইজারল্যান্ডের খাড়া রেল লাইনের কথা রয়েছে আজ। যেটিকে বলা হচ্ছে, বিশ্বের প্রথম খাড়া রেল লাইন।

এই রেল লাইন শুধু সৌন্দর্যই নয়, এই রেল লাইনে চড়ে ভ্রমণ উপভোগ করলে আপনি হবেন দুঃসাহসীও বটে। কারণ হলো একেবারে সরু দঁড়ির মতো এই রেল লাইন পাহাড়ের ফাঁক এবং নদীর ওপর দিয়ে নিয়ে যাবে আপনাকে গন্তব্যস্থলে।

এতো সব বর্ণনা শুনে যদি ট্রেনে চড়ার লোভ পেয়ে যায় আপনার, তাহলে জেনে রাখুন সেজন্য যেতে হবে সুইজারল্যান্ডে।দেশটির স্টুসে অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে তৈরি হয়েছে এই রেল লাইনটি।

এই ট্রেনের যাত্রী হলে একদিকে আপনি যেমন প্রকৃতির অপরূপ শোভার সৌন্দর্য উপভোগ করতে পারবেন সেইসঙ্গে আপনি যদি অ্যাডভেঞ্চার প্রিয় মানুষ হয়ে থাকেন- তাহলে তো কথায় নেই। আপনার মনে মনে যদি সুপ্ত ইচ্ছে থাকে তাহেলও এই ট্রেনে চাপলে আপনার সেই আশা পূরণ হবে।

সুইজ প্রেসিডেন্ট ডরিস লিউথার্ড বলেছেন, প্রায় ১৩০০ মিটার লম্বা এই রেল লাইনটি তৈরি করতে খরচ হয়েছে প্রায় ৫২.৬ বিলিয়ন ডলার। স্কিউজ সংস্থা এই রেল লাইনটি ও ট্রেনগুলো তৈরির দায়িত্বে রয়েছে। সমুদ্রপৃষ্ঠ হতে এই রেল লাইনটি প্রায় ৪৩০০ ফুট উঁচুতে অবস্থিত। ৫ বছর ধরে তৈরি করা হয়েছে এই বিশেষ রেল লাইন।

দেশটির রেলওয়ের মুখপাত্র ইভান স্টেইনার বলেছেন, এই রেল লাইন সুইসবাসীর জন্য সত্যিই এক গর্বের বিষয়।

উল্লেখ্য, ১৪ বছর পূর্বে এমন একটি পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছিল। প্রতি সেকেন্ডে ১০ মিটার যাবে এই ট্রেনটি। ইতিমধ্যেই খুলে দেওয়া হয়েছে এই রেল লাইন।

Advertisements
Loading...