মাটি খুঁড়লেই জ্বলছে আগুন! [ভিডিও]

কিছুটা মাটি খুঁড়ে দেশলাই কাঠি জ্বালালেই দাউ দাউ করে আগুন জ্বলে উঠছে!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মাটি খুঁড়লেই জ্বলছে আগুন! এমন কথা কী আপনি আগে কখনও শুনেছেন? হয়তো শোনেন নি। তবে এবার সেটি ঘটেছে বাস্তবে। এটি ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের আসানসোলের একটি স্থানে।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে জানা গেছে, ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের আসানসোলের একটি স্থানে চরে কিছুটা মাটি খুঁড়ে দেশলাই কাঠি জ্বালালেই দাউ দাউ করে আগুন জ্বলে উঠছে! সেই আগুনেই চলছে রান্নাবান্না। যে কারণে শীতকালে প্রতিদিন আসানসোলের হীরাপুরে দামোদর নদের চরে কালাঝরিয়া ঘাটে পিকনিক করতে ভিড় জমাচ্ছেন সকলেই। সেখানে চাল, ডাল, সবজি, মাংস ও রান্নার সরঞ্জাম নিয়ে গেলেই হলো, আর কিছুর প্রয়োজন নেই। জ্বালানির জন্য চিন্তা বা টাকা খরচ কোনোটাই করতে হবে না!

বিষয়টি নিয়ে অনেকের মনে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে, নদের চরে এভাবে আগুন জ্বলার কারণ কী? মাটির নিচে কয়লাখনিতে রয়েছে বিষাক্ত মিথেন গ্যাস। আসানসোলের হীরাপুর এবং রানিগঞ্জে সম্প্রতি স্টেশন খুলেছেন গ্রেট ইস্টার্ন এনার্জি নামে একটি গ্যাস উত্তোলনকারী সংস্থা। মিথেন গ্যাস হতে তৈরি হচ্ছে কোলবেড মিথেন গ্যাস কিংবা সিবিএম। আর তাতেই চলছে শহরের যানবাহন। হীরাপুরে দামোদর নদের চরে মাটি ফুঁড়ে মূলত বেরিয়ে আসছে সেই বিষাক্ত গ্যাস। পাথরের খাঁজে খাঁজে থাকা মিথন মিশছে পানিতেও। পানির উপরেও তৈরি হচ্ছে বুদ্বুদ।

এই বিষাক্ত গ্যাসের কারণেই জ্বলছে আগুন। যে কারণে ভিড় বেড়েছে পিকনিক পার্টির। মিথেন গ্যাসকে কাজে লাগিয়ে আগুন জ্বালিয়ে চলছে রান্নাবান্নার কাজ। জমে উঠেছে চড়ুইভাতি অনুষ্ঠান। প্লাস্টিকের চটি কিংবা গ্লাস পুড়ে গেলেও, এখানে এখন পর্যন্ত বড় ধরনের কোনো দুর্ঘটনার খবর মেলেনি।

খনি বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, দামোদর নদের চরে পিকনিক করা মোটেও উচিত নয়। বিষাক্ত মিথেন গ্যাসের প্রভাবে সেখানে যে কোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনাও ঘটতে পারে বলে সতর্ক করা হয়েছে।

দেখুন ভিডিওটি

Advertisements
Loading...