মিয়ানমার জেনারেলের ওপর কানাডার নিষেধাজ্ঞা আরোপ

মিয়ানমারের রাখাইনে সংখ্যালঘু মুসলিম রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে নিধন অভিযান চালানোর অপরাধে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মিয়ানমারের রাখাইনে সংখ্যালঘু মুসলিম রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে নিধন অভিযান চালানোর অপরাধে মিয়ানমার জেনারেলের ওপর কানাডার নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

মিয়ানমারের রাখাইনে সংখ্যালঘু মুসলিম রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে নিধন অভিযান চালানোর অপরাধে মিয়ানমারের সেনা কর্মকর্তার ওপর টার্গেটেড নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে কানাডা। রোহিঙ্গা নিপীড়নে ‘তাৎপর্যপূর্ণ ভূমিকা’ রাখায় মেজর জেনারেল মং মং সোয়ের বিরুদ্ধে এই নিষেধজ্ঞা আরোপ করা হয়। শুক্রবার কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড এক বিবৃতিতে এই তথ্য দিয়েছেন।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলোর খবরে বলা হয়, কানাডার ‘দ্য জাস্টিস ফর ভিকটিমস অব করাপ্ট ফরেন অফিসিয়াল অ্যাক্ট’ এর অধীনে মিয়ানমারের জেনারেলের ওপর এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। যে কারণে তিনি কানাডায় কোনো আর্থিক লেনদেন কিংবা সেখানে ভ্রমণ করতে পারবেন না। সেইসঙ্গে জব্দ করা হবে দেশটিতে থাকা তার সব ব্যাংক অ্যাকাউন্টও।

কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড বলেছেন, মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নিপীড়নের কারণে লাখ লাখ রোহিঙ্গা পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়েছে, মেজর জেনারেল মং মং সোয়ে ছিলেন এইসব নিপীড়নের অন্যতম হোতা। রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে ঘটে যাওয়া এই মানবতাবিরোধী অপরাধ কানাডা কখনও নীরব দাঁড়িয়ে দেখতে পারে না।

রোহিঙ্গাদের প্রতি সংহতি প্রকাশ করে কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, অধিকার ও সম্মানের জন্য লড়াই চালিয়ে যাওয়া সংখ্যালঘু নৃতাত্ত্বিক জনগোষ্ঠীর পাশে সব সময় সহমর্মিতা নিয়ে দাঁড়াবো আমরা। তিনি আরও বলেন, মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও বেসামরিক সরকারকে মানবাধিকারের প্রতি সম্মান দেখাতে হবে। সেইসঙ্গে রোহিঙ্গাদের মানবাধিকার লঙ্ঘনের জন্য দায়ীদের অবশ্যই বিচারের মুখোমুখিও করতে হবে।

উল্লেখ্য, ইতিপূর্বে গত ডিসেম্বরে মিয়ানমারের এই সেনা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যুক্তরাষ্ট্র।

Advertisements
Loading...