এবার কনে ঘোড়ায় চড়ে বিয়ে করতে গেলেন বরের বাড়িতে!

তার চোখে ও তার পরিবারের চোখে ছেলে ও মেয়ের মধ্যে কোনও পার্থক্য নেই

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আমরা এতোদিন দেখে এসেছি বরই কনের বাড়িতে যান বিয়ে করতে। তবে এবার এর ব্যতিক্রমি ঘটনা চোখে পড়েছে। এবার কনে ঘোড়ায় চড়ে বিয়ে করতে গেলেন বরের বাড়িতে!

সমাজের স্বাভাবিক নিয়ম অনুযায়ী ঘোমটা দিয়ে মুখ ঢেকে বসে থাকার কথা ছিল কনের। তবে সেই কাজ করেননি তিনি। তার চোখে ও তার পরিবারের চোখে ছেলে ও মেয়ের মধ্যে কোনও পার্থক্য নেই বলেই নিজের বিয়েতে তিনি গেলেন ঘোড়ায় চড়ে। শুধুমাত্র এই বার্তা দিতে যে, একটা ছেলে যা করতে পারে, ঠিক সেই কাজ করতে পারে একটা মেয়েও!

জানা যায়, নেহা কিছার নামে এই মেয়েটি নিজে একজন আইআইটি গ্রাজুয়েট। তার এই ঘোড়ায় চড়ে বিয়ে করতে যাওয়ার পিছনে পরিবারের সম্পূর্ণ সমর্থনও ছিলো। ভারতের রাজস্থানের নওয়ালগড়ের ঝুনঝুনু জেলায় এমনই ছবি ধরা পড়ে। রীতি অনুযায়ী রাজস্থানে বিয়ের আগে বানডোরি নামে একটি আচার পালন করা হয়ে থাকে। সেই আচারের অংশ হিসেবেই নেহাকে দেখা গেলো ঘোড়ায় চড়ে বিয়ের অনুষ্ঠানস্থলে উপস্থিত হতে।

মথুরা রিফাইনারিতে ইন্ডিয়ান অয়েলের অফিসার হিসেবে কর্মরত নেহা। তার পরিবার সবসময়েই চেয়ে এসেছেন, ছেলের মতোই মানুষ হোক তাদের মেয়েও। যে কারণে কোথাও কোনও কমতি রাখেননি তারা। নেহার মধ্যেও সেই একই ভাবনা কাজ করে। ছেলে ও মেয়ের মধ্যের সেই পার্থক্য মুছে ফেলতেই নেহা এবং তার পরিবার এমন একটি ব্যতিক্রমি উদ্যোগ গ্রহণ করেছে বলে জানায় সংবাদ মাধ্যমকে।

Advertisements
Loading...