গরমে মানুষ অজ্ঞান হয়ে যায় কেন?

প্রচন্ড রোদের তাপে আমাদের শরীরের তাপমাত্রা ৩০-৪০ ডিগ্রি পর্যন্ত বেড়ে যায়।

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ এখন গরমের সময়। আমাদের দৈনন্দিন কাজের জন্য প্রায়ই বাইরে যেতে হয়। বাইরে রোদের অতিরিক্ত তাপে অনেকেই আবার অজ্ঞান হয়ে যায়। কিন্তু প্রশ্ন হল, রোদের সাথে অজ্ঞানের সম্পর্ক কী?

আমরা যখন রোদে কোন কাজ করি বা চলাচল করি, তখন প্রচন্ড রোদের তাপে আমাদের শরীর উত্তপ্ত হয়ে যায়। শরীরের এই তাপমাত্রা ঠিক রাখতে শরীর ঘামতে শুরু করে এবং শরীরের তাপমাত্রা স্বাভাবিক রাখে। অনেক সময় রোদের তাপে শরীর অনেক উত্তপ্ত হয়ে যায় কিন্তু সেই তুলনায় খুব কম ঘামে। এই সময় সব থেকে বেশি উত্তপ্ত হয় মাথা। বেশি উত্তপ্ত হয়ে রক্ত পায়ে নেমে আসে এবং মাথায় রক্ত সঞ্চালন কমে যায়। মাথায় রক্ত সঞ্চালন কম হওয়ায় মস্তিষ্কে অক্সিজেনের অভাবে মানুষ অজ্ঞান হয়ে যায়।

কারণ মস্তিষ্ক তার কার্য সম্পাদন করার জন্য অক্সিজেন ব্যবহার করে। আর মস্তিষ্কে এই অক্সিজেন সরবরাহ করে রক্ত। মস্তিষ্কে রক্ত সঞ্চালন কমে গেলে অক্সিজেন সরবরাহ ও কমে যায়। সুতরাং মস্তিষ্ক তার কার্য সম্পাদন করতে পারে না বলেই অজ্ঞান হয়ে যায়।

যদি কেউ জ্ঞান হারিয়ে ফেলে তাহলে আপনাকে যা করতে হবে-

১. তাকে লম্বা করে সমতল স্থানে এমনভাবে শুইয়ে দিন যেন পা, মাথার চেয়ে উঁচুতে অবস্থান করে ।
২. সব জামা ঢিলে করে দিন। বিশেষ করে কলার এবং প্যান্ট।
৩. মাথা পেছনের দিকে সামান্য হেলিয়ে দিন যেন মুখ খোলা থাকে, এতে শ্বাস নিতে সুবিধা হবে।
৪. অজ্ঞান ব্যক্তিকে বাতাস দেওয়ার ব্যবস্থা করুন।
৫. ভেজা কাপড় দিয়ে মুখ এবং ঘাড় মুছে দিতে থাকুন

এই সময় যে কাজ গুলো ভুলেও করবেন না-

১. অজ্ঞান ব্যক্তিকে কখনোই বসা বা দাঁড় করানোর চেষ্টা করবেন না।
২. অজ্ঞান হয়ে যাওয়া ব্যক্তির মাথার নিচে বালিশ দিবেন না।
৩. কোন অবস্থাতেই রোগীকে ঝাঁকাবেন না।
৪. বিনা কারণে তাকে সরাতে চেষ্টা করবেন না।
৫.পরিপূর্ণ ভাবে জ্ঞান ফিরে না পাওয়া পর্যন্ত কিছু পান করতে দিবেন না, এতে গলায় পানীয় আটকে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

Advertisements
Loading...