এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল: মাদ্রাসায় পাসের হার বেড়েছে

এইচএসসি পরীক্ষা ২০১৮ ফলাফল জানবেন কিভাবে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আজ (বৃহস্পতিবার) উচ্চ মাধ্যমিক (এইচএসসি) ও সমমান পরীক্ষায় ফলাফল প্রকাশ পেয়েছে। এ বছর মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের ফলালফ বেড়েছে।

এ বছরের উচ্চ মাধ্যমিক (এইচএসসি) ও সমমান পরীক্ষায় ১০ বোর্ডের মধ্যে মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড সবচেয়ে ভালো ফল করেছে। এবছর আলিম পরীক্ষায় পাশের হার ৭৮ দশমিক ৬৭ শতাংশ। অথচ ১০ শিক্ষাবোর্ডে পাশের হার গড়ে মাত্র ৬৬ দশমিক ৬৪ শতাংশ। তবে পাশের হার বাড়লেও ৮ বোর্ডের মতো মাদ্রাসাতে কমেছে জিপিএ-৫।

আজ (বৃহস্পতিবার) সকাল ১০টায় গণভবনে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ ১০ শিক্ষা বোর্ডের প্রধানদের নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে এইচএসসি ফলাফলের সারসংক্ষেপ তুলে দেন।

শিক্ষামন্ত্রী এ সময় জানিয়েছেন, এবার মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড হতে আলিম পরীক্ষা দিয়েছিল মোট ৯৭ হাজার ৭৯৩ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে পাস করেছে ৭৬ হাজার ৯৩২ জন। পাসের হার হলো ৭৮ দশমিক ৬৭ শতাংশ। এর মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে এক হাজার ২৪৪ জন শিক্ষার্থী। গতবছর জিপিএ-৫ পেয়েছিল এক হাজার ৮১৫ জন। এবার পেয়েছে ১২৪৪ জন। এবার ৫৭১ জন কম জিপিএ ৫ পেয়েছে।

গত বছর মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের পাসের হার ছিলো ৭৭ দশমিক শূন্য ২ শতাংশ। এবার পাসের হার ৭৮ দশমিক ৬৭ শতাংশ। এ বোর্ডে পাসের হার বেড়েছে ১ দশমিক ৬৫ শতাংশ।

গত ২ এপ্রিল এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হয়। তত্ত্বীয় পরীক্ষা চলে গত ১৩ মে পর্যন্ত। ১৪ হতে ২৪ মের মধ্যে অনুষ্ঠিত হয় ব্যবহারিক পরীক্ষা। এবারই প্রথম ৫৫ দিনে এইচএসসির ফল প্রকাশ করা হলো।

এ বছর মাদ্রাসা ও কারিগরি বোর্ডসহ ১০ শিক্ষাবোর্ডে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিল ১২ লাখ ৮৮ হাজার ৭৫৭ জন শিক্ষার্থী। পাশ করেছে ৮ লাখ ৫১ হাজার ৭০১ জন। যা গত বছরের তুলনায় ৫৭ হাজার ৯০ জন বেশি।

এবছর ১০ বোর্ডের পাসের গড় হার ৬৬ দশমিক ৬৪ শতাংশ। গতবার এই হার ছিল ৬৮ দশমিক ৯১ শতাংশ। সেই হিসেবে এবার উচ্চ মাধ্যমিকে পাসের হার কমেছে ২ দশমিক ২৭ শতাংশ।

জিপিএ ৫ পেয়েছে মোট ২৯ হাজার ২৬২ জন। গতবার পেয়েছিলেন ৩৭ হাজার ৭২৬ জন। ফলে জিপিএ ৫ কম পেয়েছে ৮ হাজার ৪৬৪ জন।

যেভাবে মুঠোফোনে ফল জানা যাবে:

৮টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষার্থীরা মোবাইল ফোনে ফল পেতে HSC লিখে স্পেস দিয়ে তারপর বোর্ডের প্রথম তিন অক্ষর স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে ২০১৮ লিখতে হবে। তারপর ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে। ফিরতি এসএমএসে মিলবে ফলাফল।

মাদ্রাসা বোর্ডের শিক্ষার্থীরা HSC লিখে স্পেস দিয়ে MAD লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে ২০১৮ লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে। পরের এসএমএসে ফল পেয়ে যাবেন।

কারিগরি শিক্ষা বোর্ড ফল জানতে হলে HSC লিখে স্পেস দিয়ে TEC লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে তারপর ২০১৮ লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে। ফিরতি এসএমএসে ফল জেনে যাবেন শিক্ষার্থীরা।

এছাড়াও শিক্ষা বোর্ডগুলোর ওয়েবসাইট (http://www.educationboard.gov.bd) থেকে ফল জানতে পারবেন।

ফল পুনঃনিরীক্ষার নিয়ম

রাষ্ট্রায়ত্ত মোবাইল অপারেটর টেলিটক হতে আগামী ২০ হতে ২৬ জুলাই পর্যন্ত এইচএসসি ও সমমানের ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন করা যাবে।

ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করতে RSC লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিনটি অক্ষর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে বিষয় কোড লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে।

ফিরতি এসএমএসে ফি বাবদ কত টাকা কেটে নেওয়া হবে তা জানিয়ে একটি পিন নম্বর (পার্সোনাল আইযেন্টিফিকেশন নম্বর-PIN) দেওয়া হবে।

আবেদনে সম্মত থাকলে RSC লিখে স্পেস দিয়ে YES লিখে স্পেস দিয়ে তারপর পিন নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে যোগাযোগের জন্য একটি মোবাইল নম্বর লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠিয়ে দিতে হবে। প্রতিটি বিষয় ও প্রতিপত্রের জন্য দেড়শ’ টাকা হারে চার্জ কাটা যাবে।

যে সব বিষয়ের দুটি পত্র (প্রথম ও দ্বিতীয় পত্র) রয়েছে যে সকল বিষয়ের ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন করলে দুটি পত্রের জন্য মোট ৩০০ টাকা ফি দিতে হবে।

একই এসএমএসে একাধিক বিষয়ের আবেদন করতে হলে, এক্ষেত্রে বিষয় কোড পর্যায়ক্রমে ‘কমা’ দিয়ে লিখতে হবে বলে জানানো হয়েছে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...