ম্যারাডোনা বললেন: ‘আমি মনে-প্রাণে একজন ফিলিস্তিনি’

এক সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হন প্রেসিডেন্ট আব্বাস ও ফুটবল কিংবদন্তি ম্যারাডোনা

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আর্জেন্টিনার ফুটবল কিংবদন্তি ডিয়েগো ম্যারাডোনা বললেন- আমি মনে-প্রাণে একজন ফিলিস্তিনি। তিনি ফিলিস্তিনিদের ন্যায়সঙ্গত অধিকারের প্রতি তার দৃঢ় সমর্থন পুনর্ব্যক্ত করেছেন।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে জানা যায়, রাশিয়ায় ফিলিস্তিন প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের সঙ্গে এক সৌজন্য সাক্ষাতে ম্যারাডোনা এই মন্তব্য করেছেন।

রাশিয়ায় অনুষ্ঠিত হয় ২০১৮ বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনাল ম্যাচ। সেই ফাইনাল ম্যাচটি দেখার জন্য রাশিয়ায় উপস্থিত হয়েছিলেন আর্জেন্টাইন ফুটবল লিজেন্ড ডিয়াগো ম্যারাডোনা।

অপরদিকে এই ম্যাচটি দেখতে রাশিয়ায় উপস্থিত ছিলেন ফিলিস্তিনি স্বশাসন কর্তৃপক্ষের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস। সেখানে এক সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হন প্রেসিডেন্ট আব্বাস ও ফুটবল কিংবদন্তি ম্যারাডোনা। দুই জনের ওই সাক্ষাতে ম্যারাডোনা প্রেসিডেন্ট আব্বাসকে বলেন, আমি মনে প্রাণে একজন ফিলিস্তিনি।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে মস্কো যান প্রেসিডেন্ট আব্বাস। বিভিন্ন দ্বিপক্ষীয় ও আঞ্চলিক ইস্যু নিয়ে দুই নেতা বৈঠকে মিলিত হওয়ায় এই সফরের উদ্দেশ্য ছিলো।

ফিলিস্তিন একদিন চূড়ান্তভাবে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃতি লাভ করে একটি স্বাধীন এবং সার্বভৌম রাষ্ট্রে পরিণত হবে বলে মনে করেন ম্যারাডোনা।

নিজের ইনস্টাগ্রামে এক পোস্টে ম্যারাডোনা লিখেছেন, এই লোকটি ফিলিস্তিনে শান্তি চায়। জনাব আব্বাস, আপনার নিজের একটি পূর্ণাঙ্গ দেশ রয়েছে।

উল্লেখ্য, ফুটবল জগতে কিংবদন্তি হিসেবে পরিচিত ম্যারাডোনা বহু আগে থেকেই ফিলিস্তিনিদের প্রতি সমর্থন জানিয়ে আসছেন। ইতিপূর্বে ২০১৪ সালেও ম্যারাডোনা বলেছিলেন, ইসরাইল ফিলিস্তিনের সঙ্গে যা করছে তা সত্যিই লজ্জার বিষয়।

দেখুন ভিডিওটি

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...