রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অত্যাধুনিক সিনেপ্লেক্স বানানোর পরিকল্পনা

দিন যতোই যাচ্ছে সিনেমা হলের সংকট ততোই প্রকট হচ্ছে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বর্তমানে পুরোনো সিনেমা হলগুলো বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ডিজিটাল পদ্ধতির সিনেমা হল নির্মাণের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় সিনেপ্লেক্স বানানোর পরিকল্পনা করা হয়েছে।

দেশের সিনেমা ব্যবসার মন্দার এই দিনে সিনেমার বাজারে সিনেপ্লেক্সগুলো বেশ ভরসার জায়গা হয়ে উঠছে। বিষয়টি নজরে আনলো রাজধানীর স্টার সিনেপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ। সিনেমা প্রযোজনাতেও নামছে প্রতিষ্ঠানটি। শুধু প্রযোজনা নয় সেইসঙ্গে সিনেমাহল বাড়ানোর পদক্ষেপ নিয়েছে সিনেপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ।

দিন যতোই যাচ্ছে সিনেমা হলের সংকট ততোই প্রকট হচ্ছে। দেশে বহু সিনেমা হল লোকসানের কারণে বন্ধ হয়ে গেছে। সিনেমা ব্যবসাসফল না হওয়ার কারণেই মূলত সিনেমা হল মালিকরা হল বন্ধ করে দিচ্ছেন। বানিজ্যিক ঘরানার সিনেমাগুলোও মুখ থুবড়ে পড়েছে একের পর এক। তবে সিনেপ্লেক্সগুলো দেশি ও বিদেশি ছবি চালিয়ে টিকে রয়েছে।

আগামি দিনগুলো ভিন্ন ঘরানার ছবির একটি বাজার তৈরি হওয়ারও সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। যেমনটা পাশের দেশ ভারতে হচ্ছে। সাধারণ সিনেমা হলের চেয়ে ভারতের সিনেপ্লেক্সগুলোই বর্তমানে রমরমা ব্যবসা করছে।

স্টার সিনেপ্লেক্স এর চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান জানিয়েছেন, রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি এলাকায় সিনেপ্লেক্স নির্মাণ করার পরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে। এগুলো ধানমন্ডি, মহাখালী, উত্তরা এবং পূর্বাচল সিটি সিনেপ্লেক্স হওয়ার কথা রয়েছে।

গত সোমবার ছিলো স্টার সিনেপ্লেক্সের ১৪ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠান। ওই অনুষ্ঠানে মাহবুবুর রহমান জানান, ‘সীমান্ত সম্ভার ধানমন্ডিতে ৩টি মাল্টিপ্লেক্স করা হয়েছে আধুনিক ডিজাইনে। কাজও ইতিমধ্যেই শেষ করেছি, আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্ধোধন করা হবে খুব শীঘ্রই। তাছাড়াও রাজধানীর গুলশান, বনানী এবং এর আশপাশ এলাকায় বসবাসরতদের জন্য মহাখালীতে একটি মাল্টিপ্লেক্স নির্মাণ করার পরিকল্পনা রয়েছে। এর প্রাথমিক কাজও শুরু হয়েছে।’

উত্তরা ও পূর্বাচল এলাকাতেও সিনেপ্লেক্স নির্মাণ করা হবে। এতোদিন সিনেপ্লেক্সগুলোতে থ্রিডিএক্স টেকনোলজি দেখেছেন দর্শকরা। নতুন নির্মিতব্য মাল্টিপ্লেক্সেগুলোতে কোরিয়ার অত্যাধুনিক ফোরডিএক্স প্রযুক্তিতে দেখানো হবে বলেও জানান স্টার সিনেপ্লেক্স এর চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...