সাধারণ মানুষের কাছে জনপ্রিয়তা পাচ্ছে নকিয়া ১০৬

নকিয়া ১০৬ এ রয়েছে একটি ১ দশমিক ৮ ইঞ্চি ‘কিউকিউভিডিএ টিএসটি’ ডিসপ্লে এবং ৮ জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ নকিয়ার কথা কেও ভুলতে পারেনি। এক সময় নকিয়া ছিলো সবার জনপ্রিয় ফোন। এবার নকিয়া নিয়ে এলো এমন একটি ফোন যা একবার চার্জ দিলে টানা তিন সপ্তাহ অর্থাৎ ২১ দিন ব্যবহার করা যাবে। সাধারণ মানুষের কাছে জনপ্রিয়তা পাচ্ছে নকিয়া ১০৬ হ্যান্ডসেট।

নকিয়ার কথা কেও ভুলতে পারেনি। এক সময় নকিয়া ছিলো সবার জনপ্রিয় ফোন। এবার নকিয়া নিয়ে এলো এমন একটি ফোন যা একবার চার্জ দিলে টানা তিন সপ্তাহ অর্থাৎ ২১ দিন ব্যবহার করা যাবে। সাধারণ মানুষের কাছে জনপ্রিয়তা পাচ্ছে নকিয়া ১০৬ হ্যান্ডসেট।

নকিয়ার ফোন আগে যেমন জনপ্রিয় ছিলো এখনও নতুন করে জনপ্রিয়তা পেতে চলেছে। এবার এক শক্তিশালী ব্যাটারি ব্যাকআপসহ ‘নকিয়া ১০৬’ মডেলের নতুন মোবাইল ফোন নিয়ে এলো এক সময়ের বাজার সেরা মোবাইল ফোন কোম্পানি ‘নকিয়া’।

নকিয়া ১০৬ এ রয়েছে একটি ১ দশমিক ৮ ইঞ্চি ‘কিউকিউভিডিএ টিএসটি’ ডিসপ্লে এবং ৮ জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ! এই স্টোরেজে আপনার পছন্দ মতো কয়েকশো এমপি থ্রি কিংবা মিউজিক ফাইল সংরক্ষণ করে রাখতে পারবেন মাইক্রো ইউএসবি পোর্টের মাধ্যমে। এরসঙ্গে এই মোবাইল ফোনে আরও রয়েছে এফএম রেডিওর সুবিধা। এরসঙ্গে নকিয়া ১০৬ ফোনে আরও রয়েছে এলইডি ফ্ল্যাশ লাইট।

এইচএমডি গ্লোবাল কোম্পানির তৈরি নতুন এই মোবাইল ফোনে প্রি-লোডেড থাকবে একাধিক আকর্ষণীয় গেমস। ‘নকিয়া ১০৬’ মোবাইল ফোনটিতে ২ হাজার কনট্যাক্ট ও ৫০০ টেক্সট মেসেজ স্টোরেজ করা যাবে।

নকিয়ার পক্ষ হতে দাবি করা হয়েছে, টানা ২১ দিনের স্ট্যান্ডবাই সাপোর্ট নিয়ে বাজারে এসেে ডুয়াল সিমের এই ‘নকিয়া ১০৬’ মোবাইল ফোনটি। এই ফোনটিকে চার্জ দিতে হবে মাত্র একবার। ফোনটিতে ৮০০ মেগা হার্টজের শক্তিশালী ব্যাটারি থাকার কারণে টানা কথা বলার জন্য সময় পাওয়া যাবে ১৫ ঘণ্টা!

ডার্ক গ্রে রঙে পাওয়া যাবে এই ‘নকিয়া ১০৬’ ফোনটি। রাশিয়ার বাজারে ‘নকিয়া ১০৬’ মোবাইল ফোনের দাম এক হাজার ৫৯০ রুবল। সেই হিসেবে বাংলাদেশী টাকায় দাম পড়বে মাত্র ২ হাজার টাকা।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশে মোবাইল ফোনের যখন যাত্রা শুরু হয় তখন গ্রাহকদের কাছে নকিয়া ছিলো জনপ্রিয় একটি ফোন। বাংলাদেশের বাজারে ব্যাপক চাহিদা ছিলো এই নকিয়ার। পরবর্তীতে স্মার্টফোন আসার পর এইসব ফিচার ফোনের কদর কমতে থাকে। যে কারণে সিম্ফনি, ওয়ালটন, ওপো, শাওমিসহ নানা স্মার্টফোন বাংলাদেশের বাজার দখল করে।

Advertisements
Loading...