The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

রাণী এলিজাবেথ একই ব্যাগ ব্যবহার করছেন ৫০ বছর যাবত!

এমন একটি খবর শুনে যে কেও আশ্চর্য হতেই পারেন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আমরা সবাই জানি একজন রাণীর কি এতোই অভাব যে পুরোনো জিনিস এতো বছর ধরে ব্যবহার করবেন? রাণী এলিজাবেথ নাকি একই ব্যাগ ব্যবহার করছেন দীর্ঘ ৫০ বছর ধরে! আসলেও কী তাই?

রাণী এলিজাবেথ একই ব্যাগ ব্যবহার করছেন ৫০ বছর যাবত! 1

আমরা সবাই জানি একজন রাণীর কি এতোই অভাব যে পুরোনো জিনিস এতো বছর ধরে ব্যবহার করবেন? রাণী এলিজাবেথ নাকি একই ব্যাগ ব্যবহার করছেন দীর্ঘ ৫০ বছর ধরে! আসলেও কী তাই?

এমন একটি খবর শুনে যে কেও আশ্চর্য হতেই পারেন। কারণ তিনি আর কেও নন একজন রাণী। থাকেন বিশাল এক প্রাসাদে। বিত্তের অভাব নেই তার, বিলাসবহুল জীবন যাপন তার। অথচ ব্যবহার করেন একটি হ্যান্ডব্যাগ। তাও দেখতে আটপৌরে টাইপের, কালো রঙের ছোট্ট একটি ব্যাগ। এই ব্যাগ নাকি রাণী এলিজাবেথ ব্যবহার করছেন ৫০ বছর ধরে!

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম মিরর বলেছে, রাণী এলিজাবেথের এই ব্যাগটির আবার নামও রয়েছে। তার ব্যাগটির নাম ‘লানার’। ব্যাগটি রাণীর অত্যন্ত পছন্দের একটি জিনিস। তাই বিশেষ অনুষ্ঠানে কখনোই হাতছাড়া করেন না এই ব্যাগটিকে। যেসব বড় বড় অনুষ্ঠানে রাণী সাধারণত অংশগ্রহণ করেন, সেখানে তাঁর হাতে এই কালো রঙের ব্যাগটি দেখা যায়। এমনকি গত বছর উইন্ডসর ক্যাসেলের ড্রয়িংরুমেও এই ব্যাগকেই সঙ্গী করেছিলেন রানি এলিজাবেথ।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়, রানি এলিজাবেথের এই ব্যাগটি বিশেষভাবে নকশা করা একটি ব্যাগ কিন্তু মান্ধাতা আমলের ব্যাগ। এই ব্যাগটি নিয়েই ১৯৭০ সালে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট রিচার্ড নিক্সন এবং প্রধানমন্ত্রী এডওয়ার্ড হিথের সঙ্গেও ঐতিহাসিক বৈঠক করেছিলেন রাণী এলিজাবেথ। আবার ২০০০ সালে বিল ক্লিনটন ও হিলারি ক্লিনটনের সঙ্গে সাক্ষাতের সময়ও এই ব্যাগটিই ছিল রাণী এলিজাবেথের সঙ্গী হয়ে। আবার ২০১৭ সালে রাজকীয় প্যারেডেও এই ব্যাগ নিয়ে যান রানি এলিজাবেথ।

এই বিশেষ ব্যাগের বিষয়ে সংবাদমাধ্যম এক্সপ্রেসের খবরে বলা হয়, ১৯৬৮ সাল হতে এই কালো ব্যাগটি ব্যবহার শুরু করে আসছেন রানি এলিজাবেথ। রাজকীয় কিছু সূত্র বলেছে, ব্যাগটি রাণীর নাকি খুব পছন্দ করেন। এই ব্যাগ তৈরি করা কোম্পানির প্রশংসাও করেছেন অনেকেই। কারণ হলো ৫০ বছর ধরে একটি ব্যাগের টিকে থাকাও তো কম কিছু নয়! তাই এই কালো ব্যাগটি এখন বিশ্বের সংবাদ মাধ্যমের শিরোনাম।

Loading...