The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

বারাক ওবামাসহ বিশেষ কিছু ব্যক্তিদের হত্যার পরিকল্পনা?

বারাক ওবামা ছাড়াও হিলারি ক্লিনটন ও ধণকুবের জর্জ সরোসকেও হত্যার পরিকল্পনা

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মার্কিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (এফবিআই) বলেছে যে, নিউ মেক্সিকো মিলিশিয়া গ্রুপের একজন সন্দেহভাজন নেতা যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাকে হত্যার পরিকল্পনা করেছে।

বারাক ওবামাসহ বিশেষ কিছু ব্যক্তিদের হত্যার পরিকল্পনা? 1

বারাক ওবামা ছাড়াও ৬৯ বছর বয়সী ল্যারি মিচেল হপকিনস ও তার দল ইউনাইটেড কন্সটিটিউশনাল প্যাট্রিয়টস হিলারি ক্লিনটন ও ধণকুবের জর্জ সরোসকেও হত্যার পরিকল্পনা করেছেন।

এফবিআই বলেছে যে, তাদের কাছে এই ধরণের কিছু তথ্য রয়েছে। সন্দেহভাজন হামলাকারী আদালতে যে জবানবন্দী দিয়েছেন সেটি এই সপ্তাহে প্রকাশ করা হয়। যদিও তিনি কবে এই কথা বলেছেন সেটি পরিষ্কারভাবে কিছুই উল্লেখ করা হয়নি। তবে হপকিনস-এর আইনজীবী এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

তার আইনজীবী বলেছেন, হপকিনস এই ধরণের কোনও পরিকল্পনা করেছেন- সেটি সম্পূর্ণভাবে মিথ্যা।

গত সোমবার হপকিন্সকে নিউ মেক্সিকোর একটি আদালতে হাজির করা হয়। তার বিরুদ্ধে আগ্নেয়াস্ত্র ও বিস্ফোরক রাখার অভিযোগ আনা হয়। তাকে গত শনিবার আটক করা হয়। ইতিপূর্বে নিউ মেক্সিকোর সীমান্তে মরুভূমিতে তার দল বেশকিছু অভিবাসন প্রত্যাশীদেরকে আটক করে।

তবে এই দলটি বলছে যে, আমেরিকার দক্ষিণ সীমান্ত দিয়ে অভিবাসন প্রত্যাশীরা যাতে সে দেশে ঢুকতে না পারে সে জন্য তারা মার্কিন সীমান্ত রক্ষীদের সাহায্যও করছিল। তবে সীমান্তে এই দলটির কর্মকাণ্ড নিয়ে অনেকেই সমালোচনা করেছেন।

এফবিআই ২০১৭ সালে এই দলটি সম্পর্কে অবগত হয়। তখন এফবিআই জানতে পারে যে ইউনাইটেড কন্সটিটিউশনাল প্যাট্রিয়ট নামের সংগঠনটি হপকিন্স-এর বাড়ির বাইরে থেকে কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে আসছে।

তাদের ২০ জন সদস্য রয়েছে। তাদের কাছে একে৪৭ রাইফেল ও অন্যান্য অস্ত্র থাকার খবর আসে এফবিআই-এর নিকট।

এফবিআই-এর বিশেষ এজেন্ট ডেভিড গ্যাব্রিয়েল আদালতে যে এফিডেভিট দাখিল করেছেন সেখানে বলা হয়, ‘হপকিন্স বক্তব্য দিয়েছে যে ইউনাইটেড কন্সটিউশনাল প্যাট্রিয়ট প্রশিক্ষণ দিচ্ছিল জর্জ সরোস, হিলারি ক্লিনটন ও বারাক ওবামাকে হত্যা করার জন্য। কারণ এরা আনটিফা নামে একটি বামপন্থী গ্রুপকে সমর্থন করেন।’

তবে অভিযুক্ত হপকিন্সের আইনজীবী ও’কনেল প্রশ্ন তোলেন, তার মক্কেলকে কেনো দুই বছর পূর্বে আটক করা হয়নি?

তিনি আরও বলেন, ২০১৭ সালে এফবিআই হপকিন্স-এর বাড়ি তল্লাশি করে। সে সময় তার বাড়িতে যে সব অস্ত্র পাওয়া যায়, সেগুলোর মালিক ছিলেন হপকিন্স-এর স্ত্রী। তবে সে সময় এফবিআই হপকিন্সকে আটক করেনি।

বিবিসি’র এক খবরে বলা হয়, অভিযুক্তের আইনজীবী প্রশ্ন তোলেন, ‘এটা যদি এতোই ভয়ঙ্কর অপরাধই হতো, তাহলে তখন তাকে সঙ্গে-সঙ্গেই কেনো আটক করা হয়নি?’

উল্লেখ্য, হপকিন্স-এর বিরুদ্ধে যে সব অভিযোগ আনা হয়েছে সেগুলো যদি প্রমাণিত হয় তাহলে তার ১০ বছর পর্যন্ত সাজা হতে পারে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...