এক সপ্তাহ ছুটি শেষে বার্সা দলে ফিরবেন মেসি

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক॥ দেশের হয়ে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ম্যাচ এবং চ্যারিটি ম্যাচ খেলে এবারের গ্রীষ্মের সময়টা বেশ ব্যস্তই কেটেছে আর্জেন্টাইন ফুটবল তারকা লিওনেল মেসি’র। তাই নিয়েছেন এক সপ্তাহ’র ছুটি। এ ছুটি শেষেই বার্সেলোনা দলের হয়ে ট্রেনিং ক্যাম্পে ফিরবেন মেসি। আগামী মাস থেকে দেখা যাবে তাকে মাঠেও, সঙ্গে থাকবেন নেইমার। আগামী মৌসুম মেসি-নেইমার জুটি’র দেখার অপেক্ষায় রয়েছে পুরো ফুটবল বিশ্বই।


290717_heroa

মেসি’র এক সপ্তাহের ছুটি শেষ হবে জুলাইয়ের ১৫ তারিখে। এরমাঝে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ম্যাচগুলোতে সাফল্যের দেখা পেয়েছেন মেসি। গত জুনে’র ১৫ তারিখে গুয়াতেমালাকে ৪-০ গোলে হারানোর ম্যাচে মেসি করেছিলেন হ্যাটট্রিক। ইঞ্জুরি থেকে ফিরে তার এই খেলা মেসিকে বেশ আত্মবিশ্বাস জুগিয়েছিলো। বার্সেলোনায় গত মৌসুম শেষ হবার পর মেসি প্রায় ৯০ হাজার কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে বিভিন্ন দেশে ম্যাচ খেলেছেন। আর্জেন্টিনা, ইকুয়েডর, গুয়াতেমালা, ইতালি, সেনেগাল, কলম্বিয়া, পেরু এবং আমেরিকা ভ্রমণ হয়েছে তাঁর। এর মাঝে সামলাতে হয়েছে কর ফাঁকি’র অভিযোগ।

ইঞ্জুরিতে পড়ার পর টানা বিশ্রাম নিয়ে মেসি’র এ লম্বা সফরের ফলে আগামী মৌসুমে মেসিকে ম্যাচগুলোতে আগের মতো ধারালো দেখা যাবে বলে অনেকেই আশা প্রকাশ করেছেন। এদিকে মেসিকে বিক্রি করে দেয়া বিষয়ে ইয়োহান ক্রুইফের” বক্তব্যের বিরোধীতা করে বার্সা প্রেসিডেন্ট সান্দ্রো রাসেল বলেছেন, “বার্সেলোনায় মেসি-নেইমার মোটেও সমস্যা হয়ে দাঁড়াবে না, বরং আমরা দু’জন সেরা স্ট্রাইকারকে একসাথে খেলাতে যাচ্ছি ভেবে গর্ববোধ করছি। আমি মনে করি মেসি-নেইমার একটা ইতিহাসই গড়ে তুলবে।”

অন্যদিকে বার্সেলোনা নেইমারের জন্য আদর্শ এবং উপযুক্ত স্থান বলে মত দিয়েছেন মেসি। তিনি বলেন, “আমি মনে করি, নেইমার বার্সেলোনার হয়ে সবগুলো ট্রফি জিতবে, তার সেই সামর্থ্য আছে।” বিশ্বকাপ ফুটবল নিয়েও নিজের মতামত দিয়েছেন, “আমি আসলে এই বিশ্বকাপটি’র জন্য এখন বুভুক্ষ হয়ে আছি, আমার জীবনে আর অন্যকিছুই চাই না। আমি আমার পুরো সামর্থ্যটুকু দিয়েই আগামী বিশ্বকাপ খেলবো, নিজ দেশের হয়ে বিশ্বকাপ জেতা’র স্বপ্ন কার নেই!”

তথ্যসূত্রঃ গোলডটকম

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...