The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

এবার আলু থেকে জন্ম নিচ্ছে গোলাপ গাছ!

কখনও যদি ফুল গাছের চারা পাওয়া না যায় তাহলে সেটির কলম করা হয়

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ কখনও যদি ফুল গাছের চারা পাওয়া না যায় তাহলে সেটির কলম করা হয়। যেমন আপনার কাছে যদি গোলাপের চারা না থাকে তাহলে একটি ফুল গাছের ডাল এনে আলুর মধ্যে বসিয়ে কলম করে নিতে পারেন।

এবার আলু থেকে জন্ম নিচ্ছে গোলাপ গাছ! 1

কখনও যদি ফুল গাছের চারা পাওয়া না যায় তাহলে সেটির কলম করা হয়। যেমন আপনার কাছে যদি গোলাপের চারা না থাকে তাহলে একটি ফুল গাছের ডাল এনে আলুর মধ্যে বসিয়ে কলম করে নিতে পারেন।

হয়তো এমন কথা শুনে আপনি অবাক হচ্ছেন। তবে এতে অবাক হওয়ার কিছু নেই। একবার চেষ্টা করেই দেখুন। আলু থেকেই পেয়ে যাবেন সুন্দর একটি গোলাপ গাছ!

আপনি প্রথমেই গোলাপ গাছের একটি ডাল নিন। যে ডালটি কিছুদিন বেঁচে থাকবে। তারপর আলু, প্লাস্টিকের বোতল, মাটি, ছুরি ও ছোট একটি পাত্র বা টব নিন। তারপর শুরু হয়ে যাক আপনার গোলাপ চাষের কার্যক্রমটি।

ছুরি দিয়ে কাণ্ডের বাড়তি পাতাগুলো খুব সাবধানে কেটে ফেলুন। যাতে করে মূল কাণ্ডের কোনও ক্ষতি না হয়। এরপর আলুর মাঝ বরাবর আপনি একটি ছোট্ট ছিদ্র করুন। এখন সেই গর্তে গোলাপের ডালটি বসিয়ে দিন। খেয়াল রাখবেন যেনো ডালটি আলুর মধ্যে শক্তভাবে আটকে থাকে। খেয়াল রাখুন যাতে করে কাণ্ড বেঁকে বা ভেঙে না যায়।

এখন মাটিতে গর্ত করে সেখানে গোলাপের ডালসহ আলুটি রেখে মাটি দিয়ে ঢেকে দিন কিংবা টবে সাজিয়ে রাখতে পারেন। এবার পাত্রের এক চতুর্থাংশ মাটি দিয়ে ভরে নিন। প্রয়োজন হলে খুরপি দিয়ে ভালোভাবে মাটি ভরুন। এবার আলুটিকে পাত্রের মধ্যে ভালো করে বসিয়ে দিন। এবার আরও কিছু মাটি আলুর ওপরে দিয়ে পাত্রটিকে ভরিয়ে ফেলুন।

যদি রোপণের জন্য খোলা জায়গা না পান তাহলে সেক্ষেত্রে বোতলটিকে কেটে দু’ভাগ করে নিন। এখন কাটা বোতলের নিচের অংশকে আপনি ব্যবহার করতে পারেন। তারপর ডালটির উপরের দিকে বোতলের উপরের অংশ দিয়ে ভালো করে ঢেকে দিন। খেয়াল রাখবেন যেনো বোতলের মুখ যেনো খোলা থাকে।

রোপণের পর হতে ঠিক এক সপ্তাহ অপেক্ষা করুন। দেখবেন আপনার গোলাপ গাছটি দ্রুত বড় হয়ে উঠছে। এভাবেই ঘরোয়া পদ্ধতিতে নিজের গোলাপের কাণ্ডে নতুন গোলাপ ফোটাতে পারেন অনায়াসে।

Loading...