The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

হ্যান্ড স্যানিটাইজার সম্পর্কে যা আপনার অজানা

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টারস ফর ডিজিজ অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) অনুসারে দেখা যায়, অন্তত ৬০ শতাংশ অ্যালকোহল রয়েছে এমন হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করা গুরুত্বপূর্ণ

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আমরা ছোটবেলা থেকেই এই পরামর্শটি শুনে আসছি- অসুস্থতা এড়াতে হাত ধুয়ে নাও। বর্তমানে হাত ধোয়ার অন্যতম অনুসঙ্গই হলো হ্যান্ড স্যানিটাইজার। তবে এই হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবহার কী নিরাপদ? আজ জেনে নিন বিষয়টি।

হ্যান্ড স্যানিটাইজার সম্পর্কে যা আপনার অজানা 1

সকল হ্যান্ড স্যানিটাইজার কি একই রকম?

অনেকেই জানেন না যে সকল হ্যান্ড স্যানিটাইজার একই নয়। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টারস ফর ডিজিজ অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) অনুসারে দেখা যায়, অন্তত ৬০ শতাংশ অ্যালকোহল রয়েছে এমন হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করা গুরুত্বপূর্ণ। এই ধরনের স্যানিটাইজার জীবাণু ধ্বংস করতে খুব বেশি কার্যকরী। অপরদিকে অ্যালকোহলমুক্ত স্যানিটাইজার ক্ষতিকারক হতে পারে আবার জীবাণুরা এটির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে নাও পারে।

ট্রাইক্লোসান রয়েছে এমন হ্যান্ড স্যানিটাইজার এড়িয়ে চলা বিশেষভাবে একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এই কৃত্রিম উপাদানটি অনেক অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল প্রোডাক্টে ব্যবহৃত হয়ে থাকে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ) সতর্ক করে বলেছে যে, উচ্চ মাত্রার ট্রাইক্লোসান কিছু থাইরয়েড হরমোনের মাত্রা হ্রাস করতে পারে। তবে ব্যাকটেরিয়াকে অ্যান্টিবায়োটিক প্রতিরোধী করতে পারে।

হ্যান্ড স্যানিটাইজার কী অসুস্থতা প্রতিরোধ করে?

আপনি যদি এটি সঠিকভাবে ব্যবহার না করতে পারে তাহলে হ্যান্ড স্যানিটাইজার আপনার হাত থেকে ব্যাকটেরিয়া দূর করতে পারে না। সঠিক পরিমাণে স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হলে হাতের সকল পৃষ্ঠ ঘষে প্রোডাক্টটিকে শুকিয়ে নিন ও এরপর হাত মুছে নিতে কিংবা ধুয়ে ফেলতে ভুলবেন না। সঠিকভাবে ব্যবহার করা হলে অ্যালকোহলযুক্ত হ্যান্ড স্যানিটাইজার অন্তত ৯৯.৯ শতাংশ ভাইরাস, ফুঙ্গি এবং ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করতে পারে। তাই যেখানে জনসাধারণের হাত পড়ে সেখানে আপনার হাতের স্পর্শ লাগার পর হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করলে ঠাণ্ডা কিংবা ফ্লু’র ভাইরাস এড়ানো যাবে। তবে মনে রাখবেন যে, লোকজন প্রায়ক্ষেত্রে শ্বাসকার্যের সময় এটি বায়ু হতে ড্রপলেট বা তরলের অতি ক্ষুদ্র ফোঁটা গ্রহণের মাধ্যমে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে থাকে। এক্ষেত্রে আপনাকে হ্যান্ড স্যানিটাইজার সাহায্য করতে পারে না।

হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও সাবান-পানির মধ্যে কোনটি বেশি কার্যকর?

এটি সত্য যে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহারের কারণে এক ধরনের আরাম অনুভূত হয় এবং আপনার মনে হতে পারে যে হাতকে জীবাণুমুক্ত করার জন্য এটিই বোধহয় সবচেয়ে কার্যকর উপায়, তবে বাস্তবতা হলো হাত জীবাণুমুক্তকরণের ক্ষেত্রে সাবান এবং পানির ব্যবহার সব সময় এগিয়ে থাকবে। এই বিষয়ে সিডিসি বলছে যে, ইনফেকশন ছড়ানো প্রতিরোধ ও অসুস্থতার ঝুঁকি কমানোর সবচেয়ে ভালো উপায় হলো যথাসম্ভব নিয়মিতভাবে হাত ধোয়া। শুধুমাত্র তখনই হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করবেন, যখন সাবান এবং পানি পাওয়া যাবে না, যেমন ধরুন গাড়িতে, শপিং মলে কিংবা মুভি থিয়েটারে বা কনসার্টে গিয়ে। কেমিক্যালের কাজ করার পর বা হাতে দৃশ্যমান নোংরা থাকলে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করা মোটেও উচিত নয়, এসবক্ষেত্র সাবান এবং পানি ব্যবহার করতে হবে।

Loading...