The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ইসলাম অবমাননার অভিযোগ: ‘পাবজি’ গেমকে হারাম ঘোষণা!

‘পাবজি’ ইসলাম অবমাননা করে এবং খেলোয়াড়দের সহিংস করে তোলে

Update Bangla ????? ????? ???? ???? ?????

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ পাবজি গেম মানেই তরুণদের যেনো এক নেশা। তরুণ প্রজন্মের কাছে কম সময়ে বিপুল জনপ্রিয়তা পাওয়া এই অনলাইন গেম নিয়ে ইন্দোনেশিয়ায় শুরু হয়েছে ব্যাপক বিতর্ক। ইসলাম অবমাননার অভিযোগে সেখানে ‘পাবজি’ গেমকে হারাম ঘোষণা করা হয়েছে!

ইসলাম অবমাননার অভিযোগ: ‘পাবজি’ গেমকে হারাম ঘোষণা! 1

‘পাবজি’ ইসলাম অবমাননা করে এবং খেলোয়াড়দের সহিংস করে তোলে এমন অভিযোগ তুলে গেমটি ‘হারাম’ বলে ফতোয়া জারি করা হয়েছে ইন্দোনেশিয়াতে।

সম্প্রতি ইন্দোনেশিয়ার আঁচেহ প্রদেশের উলামা কাউন্সিল এমন একটি ফতোয়া জারি করেন। গেমটি নিষিদ্ধ করার জন্য তারা স্থানীয় সরকারকেও আবেদন জানিয়েছেন বলে সংবাদ মাধ্যমের খবরে জানা যায়।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়, এই ফতোয়া শুধু পাবজি নয়, অপর কয়েকটি গেমের ওপরও জারি করা হয়েছে। তবে সেগুলোর নাম এখনও প্রকাশ করেনি উলামা কাউন্সিল।

আঁচেহ উলামা কাউন্সিলের ডেপুটি চেয়ারম্যান ফয়সাল আলী বলেছেন, ‘আমাদের ফতোয়াতে বলা হয়েছে, পাবজি এবং এই ধরনের গেম হারাম। কারণ হলো এগুলো সহিংসতা ছড়ায় ও মানুষের আচরণে পরিবর্তন ঘটায়।’

ফয়সাল আলী আরও বলেন, ‘পাবজি মূলত ইসলামকে অবমাননা করে। আমরা দেখেছি শিশু, এমনকি প্রাপ্তবয়স্করাও এই গেমটির প্রতি চরমভাবে আসক্ত হয়ে পড়ছে এবং তারা এটা তাদের মোবাইল ফোনে সর্বত্র খেলছে। বিষয়টি আশঙ্কাজনক হয়ে পড়েছে।

উল্লেখ্য, মুসলিমপ্রধান দেশ ইন্দোনেশিয়ায় একমাত্র আঁচেহ প্রদেশে ইসলামি শরীয়া আইন কার্যকর রয়েছে। এর আগে ইরাক, নেপাল এবং ভারতের গুজরাট রাজ্যে বাস্তব জীবনে সহিংসতার আশঙ্কায় গেমটি নিষিদ্ধ করা হয়। এই পাবজি গেম খেলতে গিয়ে ভারতে সম্প্রতি কয়েকজন অল্প বয়সী তরুণের মৃত্যুও ঘটেছে।

Loading...