The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

মুখের মেদ কমানোর ব্যায়াম

মুখের অতিরিক্ত মেদ এর কারণে শরীরকে অস্বাভাবিক মোটা মনে হতে পারে অনেকের কছে যা আপনার বাহ্যিক রুপ লাবণ্যকে অচিরেই নষ্ট করে দিতে পারে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মুখের মেদ আমদের সৌন্দর্যহানি ঘটায়। থুতনির কাছে যদি অতিরিক্ত মেদ জমে যায় তাহলে তা অনেকের কাছেই দেখতে ভালো লাগে না। তাই মুখের মেদ কমানোর ব্যায়াম সম্পর্কে আজ জেনে নিন।

মুখের মেদ কমানোর ব্যায়াম 1

মুখের অতিরিক্ত মেদ এর কারণে শরীরকে অস্বাভাবিক মোটা মনে হতে পারে অনেকের কছে যা আপনার বাহ্যিক রুপ লাবণ্যকে অচিরেই নষ্ট করে দিতে পারে। ওজন বা অতিরিক্ত মেদ বাড়লে তার প্রভাব আপনার মুখে বিদ্যমান হয়। মুখ ভারি ও মোটা দেখায় এবং গাল ফুলে যায়।মুখে এবং থুতনির নীচে অতিরিক্ত চর্বি জমলে চেহারার আকার নষ্ট হয়। থুতনির কাছে মেদ জমে ডাবল চিন দেখা যায়। ঠিক তেমনি ওজন কমলে সবার আগে তার প্রভাব মুখে এসে পড়ে। মুখের মেদ কমানোর জন্য আমরা অনেক ভাবি কিন্তু তা কার্যকর করিনা। তবে মেদ কমাতে চাইলে আমাদের সকলের কিছু ব্যায়াম করতে হবে। কিছু নির্দিষ্ট ব্যায়াম আর কৌশল দ্বারা আমরা খুব কম সময়ে এবং সঠিক উপায়ে আমাদের মুখের অতিরিক্ত মেদ কমিয়ে নিজেকে আরো সুন্দর ও মনোমুগ্ধকর করে তুলতে পারি। নিয়মিত ব্যায়ামগুলো করলে মুখের মেদ কমানো অনেকটাই সহজ হবে। আসুন তাহলে জেনে নেয়া যাক মুখের মেদ কমানোর কিছু সহজ ব্য্যায়াম।

# মুখ বন্ধ করুন এবং জিহ্বাকে দাঁতের বাইরে ঘোরান। তবে লক্ষ্য রাখতে হবে জিহ্বা যাতে মুখের ভেতরে থাকে। এই ব্যায়াম দিনে দুই থেকে তিন বার করুন ১৫ বার করে।

# মুখ হা করে থাকা বা হা করে রাখা। মুখ যতটা সম্ভব হাঁ করে রাখুন। মুখকে যতদূর পারবেন খোলার চেষ্টা করতে থাকুন যতক্ষণ পর্যন্ত না গালে, এবং থুতনিতে টান অনুভব করছেন। এই ভাবে কিছুক্ষণ রেখে দিতে হবে। তারপর কয়েক সেকেন্ড একটু রিল্যাক্স করতে হবে এবং পুনরায় তা আবার করতে হবে এইভাবে দিনে ৫-৬ মিনিট একই পদ্ধতিতে ব্যায়াম করতে থাকুন। এই ব্যায়াম করলে আমাদের মুখের রক্ত সঞ্চালন বেড়ে যায় যা মুখের অতিরিক্ত মেদ কমাতে অনেক গগুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে।

# মুখের মধ্যে আঙ্গুল ঢুকিয়ে ব্যায়াম করা। এই ব্যায়ামের শুরুতে আপনাকে আপনার আঙ্গুলকে মুখের মধ্যে স্থাপন করতে হবে। পরবর্তীতে আঙ্গুল ঢুকিয়ে যতটা সম্ভব জোরে চুষুণ দিতে হবে। মুখে আঙ্গুল থাকা অবস্থায় ১০ অথবা ১৫ পর্যন্ত গুনতে থাকুন। প্রতিদিন ১০ থেকে ১৫ বার যদি নিয়মিত এই এক্সারসাইজ করা হয় তাহলে আমাদের গালের অতিরিক্ত মেদ অনেকটাই কমে যাবে এবং মুখের মোটা ও ভারি ভাব থাকবে না।

# আপনার ঘাড়কে যতদূর সম্ভব পিছনের দিকে হেলান। ততক্ষণ পর্যন্ত হেলাতে হবে যতক্ষণ নাআপনি আপনার ঘাড়ে চাপ অনুভব করছেন। চাপ অনুভূতির আগ পর্যন্ত ধীরে ধীরে মাথা পিছন দিকে হেলাতে হবে। ঘার হেলানোর সাথে সাথে আপনার চোয়াল ডান দিক থেকে বাঁ দিক এবং বাঁ দিক থেকে ডান দিকে নড়া চড়া করতে থাকুন। এভাবে দিনে ২ থেকে ৩ মিনিট করে অন্তত ৫ বার এই ব্যায়াম করতে থাকুন। এইভাবে ব্যায়াম করতে থাকলে ঘাড় ও গলার মাসল টোন হবে যার ফলে আমাদের অতিরিক্ত মেদও কমে যাবেএবং আপনাকে দেখাবে পরিপূর্ণ।

# মুখের ভিতরে হাওয়া ভরতি করে গাল ফুলিয়ে রাখুন। তারপর হাওয়া একগাল থেকে অন্য গালে এমনভাবে ঠেলে দিন যাতে গালটা ফুলে উঠে। তারপর আবার আগের গালে নিয়ে আসুন হাওয়া। এভাবে করতে থাকুন কিছুক্ষণ তারপর শেষে শিস দেওয়ার ভঙ্গিতে বার করে দিন হাওয়াটা। এইভাবে দৈনিক মিনিট পাঁচেক করুন এই ব্যায়াম।

এছাড়া ঘুম কম হলে মুখের চামড়া ঝুলে যায়, ফলে মুখটা আরও ফোলা লাগে। তাই আমাদের সকলের দিনে আট ঘন্টা অবশ্যই ঘুমানো উচিত। এছাড়া চিউইং গাম চিবোলে মুখের চর্বি কমে। এটি মুখের মেদ কমানোর জন্য একটি খুবি উপকারী ব্যায়াম। নিয়মিত ফেস ম্যাসাজ করলেও মুখের মেদ অনেক কমে থাকে। ফেস ম্যাসাজ করলে মুখের রক্ত সঞ্চালন ভালো হয় এতে করে মুখের চামড়া টানটান হয়।

Loading...