The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

কিছু ব্যতিক্রমী ও প্রয়োজনীয় ফিচার জিমেইলে

অনেকেই এসব সুবিধা সম্পর্কে তেমন কিছুই জানেন না

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ গুগল কিছুদিন হলো জিমেইল প্ল্যাটফর্মে নতুন কিছু ফিচার যুক্ত করেছে। এগুলোর মাধ্যমে আপনি ব্যতিক্রমধর্মী ও প্রয়োজনীয় কিছু সুবিধা পাবেন।

কিছু ব্যতিক্রমী ও প্রয়োজনীয় ফিচার জিমেইলে 1

বেশির ভাগ মানুষ নিয়মিত জিমেইল ব্যবহার করেন। তবে তাদের অনেকেই এসব সুবিধা সম্পর্কে তেমন কিছুই জানেন না। জিমেইলে নতুন কিছু ফিচার যুক্ত করা হয়েছে যেমন- আপনার পাঠানো মেইলে ইচ্ছে করলে নির্দিষ্ট সময়সীমা দিয়ে দিতে পারবেন। এতে করে ওই সময়ের পর মেইলটি স্বয়ংক্রিয়ভাবেই ডিলিট হয়ে যাবে। এমন আরও অনেক সুবিধা বর্তমানে জিমেইলে রয়েছে। সেই রকম কয়েকটি সুবিধা হলো:

পাঠানো মেইল ফিরিয়ে নিয়ে আনা

আমরা অনেক সময় ভুলবশত খসড়া মেইল পাঠিয়ে দিয়ে ফেলি। বা ভুলবশত চাপ লেগে মেইল চলে যেতে পারে। এই ধরনের সমস্যা সমাধানের একটি উপায় যুক্ত করা হয়েছে। ভুল করে কোনও মেইল পাঠানোর পর সেই ভুল শোধরাতে আপটিন সময় পাবেন সর্বোচ্চ ৩০ সেকেন্ড। এর মধ্যেই ‘আনডু’ অপশনে ক্লিক করতে হবে। এতে আপনার পাঠানো মেইলটি প্রাপকের ইনবক্স হতে মুছে গিয়ে আবার আপনার ইনবক্সে এসে জমা হবে। ‘আনডু সেন্ড’ নামে এই অপশনটি পাওয়া যাবে জি-মেইলের ভেতর সেটিংস ট্যাবে গিয়ে।

স্বয়ংক্রিয়ভাবে যেভাবে মুছে যাবে মেইল

গুগল গত বছর জি-মেইলে ফিচারটি নিয়ে আসে। এই ফিচারের সাহায্যে ইমেইল পাঠানোর সময় ইচ্ছে করলে একটি সময় নির্ধারণ করে দিতে পারবেন গ্রাহকরা। নির্ধারিত ওই সময়ের পরে মেইলটি স্বয়ংক্রিয়ভাবেই মুছে যাবে। সময় শেষ হয়ে যাওয়ার পর কোনও প্রাপক চাইলেও সেই মেইলে আর প্রবেশ করতে পারবেন না। এই ফিচারটি পাওয়া যাবে ই-মেইল কম্পোজের সময় নিচের দিকে লক কিংবা তালা চিহ্নিত অপশনে গিয়ে।

মেইল প্রাপকের কাছে কখন পৌঁছাবে তাও নির্ধারণ করা যায়

আপনার কাজের প্রয়োজনে আপনি বিভিন্ন মেইল করে থাকেন। তবে সেটি কখন গ্রাহকের কাছে পৌঁছাবে ওই সময়টিও এখন থেকে নির্ধারণ করে দেওয়া সম্ভব হবে। এক্ষেত্রে ই-মেইল পাঠানোর সময় সেন্ড অপশনের পাশে একটি অ্যারো কিংবা তীর চিহ্নিত অপশন আপনি দেখতে পাবেন। সেখানে ক্লিক করে ই-মেইলের টাইম নির্ধারণ করে দেওয়া যাবে।

মেইলে এসএমএস পাসকোড যুক্ত করার বিষয়

এসএমএস পাসকোডের মাধ্যমে মেইলে বাড়তি নিরাপত্তা যোগ করা যায়। মেইল কম্পোজের সময় নিচের দিকে লক কিংবা তালা চিহ্নিত অপশনে গিয়ে এই ফিচারটি পাওয়া যাবে। এটি ব্যবহারের কারণে এসএমএসে যাওয়া পাসকোড ছাড়া মেইল কখনও ওপেন করা যাবে না।

অফলাইনে ইমেইল ব্যবহার পদ্ধতি

বর্তমানে অফলাইনেও ইমেইল ব্যবহার করা সম্ভব। যদিও এর মূল কাজটি অনলাইনেই হয়ে থাকে। তবে জি-মেইলে অফলাইন মোড দেওয়া থাকলে কোনও ব্যবহারকারী ইন্টারনেটে না থাকলেও তখন মেইলে প্রবেশ করতে পারবেন এবং ইমেইল কম্পোজ এবং সেভ করে রাখতে পারবেন। অফলাইন মোড অপশনটি পাওয়া যাবে জিমেইলের সেটিংস অপশনে গিয়ে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...