The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

করোনা ভাইরাস: প্রতিরোধের উপায় জেনে নিন

নে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মারণব্যধি করোনা ভাইরাস নিয়ে বিশ্বজুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। এই ভাইরাসটি চীনে ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে পড়েছে। সেখানে ৮১১ জনের মৃত্যু ঘটেছে। ৩৭ হাজার মানুষ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। করোনা ভাইরাস সম্পর্কে করণীয় বিষয়গুলো জেনে নিন।

করোনা ভাইরাস: প্রতিরোধের উপায় জেনে নিন 1

করোনা ভাইরাস আসলে কী ধরনের রোগ?

চীনে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু। ইতিমধ্যেই সেখানে মৃত্যু ঘটেছে ৮১১ জনের। আক্রান্ত ৩৭ হাজার মানুষ। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, করোনা ভাইরাস জুনোটিক। অর্থাৎ এই ভাইরাসটি পশুর দেহ হতে মানুষের শরীরে ছড়িয়ে পড়ে। বর্তমানে আক্রান্ত ব্যক্তির থেকেও অন্য ব্যক্তির শরীরেও এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ছে। আক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি-কাশির সংস্পর্শ এলে কিংবা তার সঙ্গে হাত মেলালেও করোনাভাইরাস শরীরে বাসা বাঁধতে পারে।

করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের লক্ষণসমূহ

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার প্রথম লক্ষণ হলো জ্বর, শ্বাসকষ্ট, কাশি। অসুখ আরও বাড়লে কিডনি পুরোপুরিভাবে নষ্ট হয়ে যেতে পারে। করোনা ভাইরাস একটি মরণব্যধি। সবচেয়ে উদ্বেগের বিষয় হলো এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাসের কোনো ওষুধ কিংবা ভ্যাকসিন আবিষ্কার হয়নি। তাই নিজেকে সাবধান রাখাই বর্তমানে একমাত্র প্রতিরোধ।

করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচার উপায়সমূহ জেনে নিন

# যতোটা সম্ভব ঘরেই থাকার চেষ্টা করুন। তবে বাইরে প্রয়োজন ছাড়া বের না হওয়াই হবে বুদ্ধিমানের কাজ।

# বাইরে বের হওয়ার পূর্বে সঙ্গে মাস্ক নিতে অবশ্যই ভুলবেন না।

# বাস, ট্রেন কিংবা এই জাতীয় গণপরিবহনগুলো এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন।

# বাইরে থেকে ফিরে হ্যান্ডওয়াশ কিংবা লিকুইড সোপ দিয়ে ভালো করে হাত ধুয়ে নিন।

# বাইরে যাওয়ার পূর্বে ঘরের দরজা জানালা বন্ধ করে যান। সকালে ঘণ্টাখানেকের জন্য জানালা খোলা রাখতে পারেন। তাতে পর্যাপ্ত সতেজ বাতাস ও সূর্যের আলো আপনার ঘরে প্রবেশ করবে।

# সুস্থ এবং শক্তিশালী থাকতে স্বাস্থ্যকর খাবার খান। প্রচুর ফলমূল ও পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি খাবেন। কোনোকিছু খাওয়া বা রান্না করার আগে ভালো করে সেটি ধুয়ে নেবেন।

# ডিম বা মাংস রান্নার সময় চেষ্টা করুন পর্যাপ্ত সময় ধরে (বেশি করে হিট দিয়ে) রান্না করতে হবে। খেয়াল রাখবেন, এগুলো যেনো অবশ্যই ভালো মতো সেদ্ধ হয়।

# ময়লা কাপড় দিন বা সপ্তাহ ধরে ফেলে রাখবেন না। এগুলো দ্রুত ধুয়ে রাখার চেষ্টা করুন।

# ঘর সব সময় পরিষ্কার রাখুন। নিয়মিত আপনার থাকার ঘর ও কাজের জায়গা পরিষ্কার করুন। এক্ষেত্রে ইথাইল অ্যালকোহল ব্যবহার করতে পারেন। এটি আপনি যেকোনো ওষুধের দোকানেই পেতে পারেন।

# সুরক্ষিত থাকতে হলে অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করবেন। অসুস্থ বোধ করলে দ্রুত চিকিৎসকের স্মরণাপন্ন হোন। আপনার পরিচিত কেও আক্রান্ত মনে হলেই দ্রুত তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করুন।

বাংলাদেশ সরকার ইতিমধ্যেই এই মারণ ব্যধি করোনা ভাইরাস রোধে পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। বিমান বন্দরে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। যাতে করে চীন বা চীনের সঙ্গে সংযুক্ত কোনো ফ্লাইটের যাত্রী বিশেষ চেকিং ব্যবস্থা ছাড়া বাংলাদেশে প্রবেশ করতে না পারে সেই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। অপরদিকে কুর্মিটোলা হাসপাতালে একটি বিশেষ ইউনিট খোলা হয়েছে এই ধরনের কোনো রোগির সন্ধান পেয়ে সেখানে ভর্তি করার জন্য। তাই এমন লক্ষণ দেখলে তৎক্ষণাৎ চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করা হবে বুদ্ধিমানের কাজ। কারণ এই মারণব্যধি প্রতিরোধ ছাড়া যেহেতু কোনো ব্যবস্থা নেই। তাই আমাদের সকলকেই আতঙ্কিত না হয়ে সচেতন হতে হবে।

Loading...