The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

কাটা আঙুল দিয়েই খুলছে স্মার্টফোনের লক!

বেলারুশের বাসিন্দার নাম ইউরি ভিনোগ্রাদভ। তিন মাস পূর্বে কারখানায় কাজ করতে গিয়ে ৫৩ বছরের ওই ব্যক্তির বুড়ো আঙুল কেটে গিয়েছিলো

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ স্মার্টফোনের লক খুলতে গেলে আঙুলের ছাপ দিতে হয়। তবে সেই আঙুল যদি না থাকে তাহলে কী হবে? একবার ভাবুন!

কাটা আঙুল দিয়েই খুলছে স্মার্টফোনের লক! 1

বেলারুশের বাসিন্দার নাম ইউরি ভিনোগ্রাদভ। তিন মাস পূর্বে কারখানায় কাজ করতে গিয়ে ৫৩ বছরের ওই ব্যক্তির বুড়ো আঙুল কেটে গিয়েছিলো। যার জেরে শেষ পর্যন্ত ফিঙ্গার লক থাকা স্মার্টফোনের লক খুলতে পারছিলেন না। তার সেই কেটে যাওয়া আঙুল তিনি রেখেছিলেন ফ্রিজে।

তবে সম্প্রতি তিনি দাবি করেছেন, ফ্রিজারে রাখা ওই কাটা আঙুল দিয়েই তিনি এবার আনলক করেছেন স্মার্টফোন। সেই আনলক করার ভিডিও পোস্টও করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। তারপর বিষয়টি নিয়ে শুরু হয়েছে আলোচনা-সমালোচনা।

সেই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে, ফ্রিজে রাখা কাটা আঙুলটি তিনি বের করলেন। তারপর সেই আঙুল দিয়ে স্মার্টফোনের লক খোলার চেষ্টাও করলেন। তবে তাতে খুললো না লক। তারপর তিনি, সেই আঙুল ১০ মিনিট চুবিয়ে রাখলেন পানিতে। পানি থেকে তুলে ভালো করে মুছলেন। এবার সেই আঙুল স্মার্টফোনে কয়েকবার ধরতেই খুলে গেল ফোনের লক!

যদিও এই ভিডিও ছড়িয়ে পড়তেই বিতর্ক শুরু হয় বিষয়টি নিয়ে। কারণ বেশ কয়েকটি সমীক্ষা বলছে যে, কাটা আঙুল দিয়ে নাকি ফোনের লক খোলা সম্ভব নয়। স্মার্টফোনের ফিঙ্গারপ্রিন্ট রিডারের ইলেকট্রিক্যাল সার্কিটের প্রয়োজন হয় লক খোলার জন্য। মানুষের হাত সেই সার্কিটের কাজই করে। তবে কাটা আঙুল দিয়ে সেই শর্ত মোটেও পূরণ হয় না। তাই বেলারুশের ওই ব্যক্তির দাবি কতোটা যুক্তিযুক্ত ইতিমধ্যেই তা নিয়ে প্রশ্নও উঠতে শুরু করেছে। ঘটনাটি কী আসলেও সত্যি? নাকি মিথ্যা?

Loading...