The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ভ্রমণ: ঘুরে আসুন চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদার মেহেরুন শিশু পার্ক

চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলার ইব্রাহিমপুর গ্রামে ৬০ বিঘা জমির উপর মেহেরুন শিশু পার্ক ও মিনি চিড়িয়াখানা গড়ে তোলা হয়েছে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ অনেক সময় মফস্বলের অনেক ছোট জায়গাতেও বিনোদনের আশ্বাদন পাওয়া যায়। ঠিক তেমনই একটি প্রতিষ্ঠান হলো চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদার মেহেরুন শিশু পার্ক। আপনিও ঘুরে আসতে পারেন।

ভ্রমণ: ঘুরে আসুন চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদার মেহেরুন শিশু পার্ক 1

কে আর মলিক ফাউন্ডেশনের অর্থায়নে চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলার ইব্রাহিমপুর গ্রামে ৬০ বিঘা জমির উপর মেহেরুন শিশু পার্ক ও মিনি চিড়িয়াখানা গড়ে তোলা হয়েছে। চুয়াডাঙ্গা শহর হতে প্রায় ১৫ কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত এই পার্কটি স্থানীয় মানুষের চিত্তবিনোদনের অন্যতম একটি স্থানে পরিণত হয়েছে, যে কারণে মেহেরুন শিশু পার্কে প্রতিদিনই বিনোদন প্রত্যাশী দর্শনার্থীদের সংখ্যাও বাড়ছে।

মেহেরুন শিশু পার্ক এবং মিনি চিড়িয়াখানায় রযেছে বিভিন্ন আকর্ষণীয় রাইড, ঘোড়ার গাড়ি, নান্দ্যনিক ভাস্কর্য, রিসোর্ট, রেস্টুরেন্ট এবং তাঁতশিল্প পল্লী। দর্শনার্থীদের জন্য মিনি চিড়িয়াখানায় রাখা হয়েছে ময়ূর, বানর, উট, হরিণ, পেঁচা সহ নানা প্রজাতির পশুপাখি।

মেহেরুন শিশু পার্ক এবং মিনি চিড়িয়াখানার জনপ্রতি প্রবেশ মূল্য ৫০ টাকা। পার্কের বিভিন্ন রাইডে চড়তে হলে ৩০ হতে ৫০ টাকা দিতে হয়। এছাড়াও পার্কে আগত যানবাহনের জন্য পার্কিং ফি প্রযোজ্য রয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা যাবেন কিভাবে

দেশের যেকোন প্রান্ত হতে চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুর মহাসড়কের ভালাইপুর মোড় এসে সেখান থেকে অটোরিকশায় চড়ে রামনগর গ্রাম হয়ে আপনাকে যেতে হবে ইব্রাহিমপুর গ্রামে অবস্থিত মেহেরুন শিশু পার্ক।

ঢাকা হতে চুয়াডাঙ্গা : রাজধানী ঢাকা হতে চুয়াডাঙ্গার দূরত্ব ২৫০ কিলোমিটার পথ। ঢাকা হতে বাস এবং ট্রেনে চুয়াডাঙ্গা জেলায় যাওয়ার সুযোগ আছে। গাবতলী ও সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল হতে মানভেদে বাসে করে চুয়াডাঙ্গা জেলায় যেতে জনপ্রতি খরচ পড়বে ৩০০ হতে ৫০০ টাকার মধ্যে উল্লেখযোগ্য বাস সার্ভিসের মধ্যে পর্যটক পরিবহণ (01719-813004), স্কাই লাইন, পাবনা এক্সপ্রেস (02-9008581) ও চুয়াডাঙ্গা এক্সপ্রেস উল্লেখযোগ্য বাস সার্ভিস।

কমলাপুর রেলওয়ে ষ্টেশন হতে চিত্রা, সুন্দরবন এক্সপ্রেস ও বেনাপোল এক্সপ্রেস ট্রেন যমুনা সেতু পার হয়ে চুয়াডাঙ্গার পথে যাত্রা করে। শ্রেণীভেদে ঢাকা হতে চুয়াডাঙ্গা পর্যন্ত জনপ্রতি ট্রেনের টিকেটের মূল্য ৪০০ হতে ৮০০ টাকা।

থাকবেন কোথায়

আপনি ইচ্ছে করলেই চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরের সাধারণ মানের আবাসিক হোটেলে রাত্রি যাপন করতে পারবেন। এসব হোটেলে এক রাত থাকতে আপনার খরচ হবে ১০০ হতে ৫০০ টাকা। উল্লেখযোগ্য আবাসিক হোটেলের মধ্যে রয়েছে – হোটেল অবকাশ (0761-62288), অন্তুরাজ আবাসিক হোটেল (0761-62702), হোটেল আল মেরাজ (0761-62383) ও হোটেল প্রিন্স (0761-62378)।

তথ্যসূত্র: https://vromonguide.com

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...