The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ওদের জন্য প্রতিদিন এক বেলা পেটপুরে খাবার জুটছে ছিন্নমূল মানুষদের

অর্থ কড়ি অনেকের আছে। কিন্তু মানুষের পাশে গিয়ে দাঁড়ানোর মন মানষিকতা সকলের নেই

ঈশ্বরদী প্রতিনিধি ॥ সারা দেশ যখন করোনায় কাতর ওঁরা তখন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নি:স্বার্থভাবে এগিয়ে এসেছেন ঈশ্বরদীর কিছু যুবক। মানুষের মুখে অন্ন তুলে দিচ্ছেন। ওদের জন্য এক বেলা পেটপুরে খাবার জুটছে ছিন্নমূল মানুষগুলোর।

ওদের জন্য প্রতিদিন এক বেলা পেটপুরে খাবার জুটছে ছিন্নমূল মানুষদের 1

অর্থ কড়ি অনেকের আছে। কিন্তু মানুষের পাশে গিয়ে দাঁড়ানোর মন মানষিকতা সকলের নেই। বিশেষ করে বন্যা বা অন্য দুর্যোগগুলোর কথা একেবারেই আলাদা। এই মহামারি করোনার সময় যেখানে ঘর থেকে বের হওয়া যাচ্ছে না সেখানে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ওরা ক’জনা মানবিক সেবা নিয়ে এগিয়ে এসেছেন।

ছিন্নমূল সেবা সংগঠনের ব্যানারে প্রতিরাত ৯টায় ঈশ্বরদী বাসস্ট্যান্ড রেল ইয়ার্ডসহ বিভিন্ন এলাকায় প্রতিরাতেই খাবার পরিবেশন করা হচ্ছে।

ওদের জন্য প্রতিদিন এক বেলা পেটপুরে খাবার জুটছে ছিন্নমূল মানুষদের 2

সকালে চাল-ডাল ইত্যাদি কেনা। বিকালে আবার তা নিজেরাই রান্না করছেন। প্রতিদিন এক রুটিং। কোনো দিন খিচুড়ি ভাত, কোনো দিন মুরগী ভাত, কোনো দিন ডিম ভাত, কখনও খাসির মাংস সোলার ডাল- যখন যা জুটছে তাই দিয়ে রান্না করা হচ্ছে। নির্ধারিত সময় রাত ৯টায় খাবারগুলো পরিবেশনও করা হচ্ছে। ছিন্নমূল মানুষগুলো সারাদিন যেভাবেই কাটুক রাতে তাদের ভরসা ওই খাবার। তারা যানেন এলাকা যুবকরা তাদের খাবার নিয়ে যথা সময় হাজির হবেন। মটরসাইকেলে একটি গ্রুপ এইসব খাবার নিয়ে হাজির হন ছিন্নমূল অসহায় মানুষদের পাশে। দেশের করোনার এই পরিস্থিতিতে এই ছিন্নমূল মানুষগুলো আজ বড়ই অসহায় অবস্থায় দিন কাটাচ্ছেন। কাজ নেই, কর্ম নেই খাবার জুটবে কোথা থেকে?

এই ছিন্নমূল সেবা সংগঠনে যারা নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন তারা হলেন:

তপন, বিপু, তুহিন, চেলা, কবির আলি (হিরু), দিলীপ, শাহিন, মারুফ, সোহাগ, জাহিদ,বাবুজি, সাকিল,বিপ্লব,শাহাদাৎ, সিজেন,ডাঃআনোয়ার, আফছার আলী, রাজিবুল আলম (ইভান), গোলাম, এস আই আতিক, নাজমুল, হালিম, পিডিবি আনোয়ার, রাজা, সোহেল, লিখন সহ আরও অনেকেই রয়েছেন যাদের অক্লান্ত পরিশ্রমের বিনিময়ে দুঃস্থ ছিন্নমূলদের এক পেট রান্না খাবার প্রতি রাতে তাদের হাতে পৌছে যাচ্ছে।

ওদের জন্য প্রতিদিন এক বেলা পেটপুরে খাবার জুটছে ছিন্নমূল মানুষদের 3

জানা যায়, এই কার্যক্রম চলছে সমাজের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের আর্থিক সহায়তায়। যারা তাদেরকে এখন পর্যন্ত সহায়তা ও সাহায্য করে আসছেন তাদের প্রতি “ছিন্নমূল সেবা সংগঠন ঈশ্বরদী ” শাখার পক্ষ থেকে সালাম ও অভিনন্দন জানানো হয়েছে। আপনিও চাইলে এই মহতি উদ্যোগের সঙ্গে সামিল হতে পারেন আর্থিক সহযোগিতার মাধ্যমে। উপরোক্ত ব্যানারে দেওয়া নাম্বারে যোগাযোগ করে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে পারেন।

একদিন হয়তো আমরা করোনামুক্ত হবো। সেদিন মনে পড়বে আজকে যারা নি:শ্বার্থভাবে এগিয়ে এসে অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছেন।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...