The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ব্রিটেনের রানিকে নিয়ে সংশয়

করোনা মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়ার পর ১৯ মার্চ হতে ৯৪ বছর বয়সী এই রাজকর্মকর্তা হোম কোয়ারেন্টাইন শুরু করেন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ হয়তো কখনও আর ব্রিটেনের রাজকীয় দায়িত্বে ফিরতে নাও পারেন। এমন একটি খবর বেরিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমগুলোতে।

ব্রিটেনের রানিকে নিয়ে সংশয় 1

করোনা মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়ার পর ১৯ মার্চ হতে ৯৪ বছর বয়সী এই রাজকর্মকর্তা হোম কোয়ারেন্টাইন শুরু করেন। এই গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে দেশটির প্রভাবশালী ট্যাবলয়েড পত্রিকা দ্য সান।

রানি কবে নাগাদ প্রকাশ্যে আসবেন, সেটি এক কথায় বলা যায় অনিশ্চিত। তার সহকর্মীরা অবশ্য তাকে দায়িত্বেই রেখে দিতে চাইছেন।

দ্য সানের প্রতিবেদনে বলা হয়, রানি তার রেডবক্সের মাধ্যমে সংসদ হতে প্রতিনিয়ত আপডেটও পাচ্ছেন। একই সঙ্গে বরিস জনসন সপ্তাহে একবার করে তার সঙ্গে ফোনে ওকথা বলছেন।

রাজপরিবারের জীবনী লেখক অ্যান্ড্রু মর্টন বলেছেন যে, ‘বর্তমান পরিস্থিতিতে রানি হয়তো কখনও আর দায়িত্বে ফিরতে পারবেন না। তার সুরক্ষার জন্য এমন সিদ্ধান্ত হয়তো আসতে পারে। ব্রিটিশরা এখন তাকে টিভিতে দেখতেই পছন্দ করেন।’

‘করোনা ভাইরাস সহসাও যাচ্ছে না। তাই রানির পক্ষে আগের মতো মিটিং করাও কঠিন কাজ।’

উল্লেখ্য, মা রানি এলিজাবেথ দ্য কুইন মাদারের মৃত্যুর পর ১৯৫২ সালে যুক্তরাজ্যের সিংহাসনে আসীন হন দ্বিতীয় এলিজাবেথ। তিনি ব্রিটিশ সিংহাসনে সবচেয়ে দীর্ঘ সময় আসীন রয়েছেন। ৬৮ বছরের রাজকীয় ক্ষমতাকালে এই প্রথম এতোদিন তিনি দায়িত্বের বাইরে রয়েছেন।

কোভিড-১৯ রোগে ইংল্যান্ডে মৃত্যু বা আক্রান্ত না কমলেও বুধবার হতে লকডাউনের বিধিনিষেধ কিছুটা শিথিল করার ঘোষণা দিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। তিনি জানিয়েছেন, বুধবার থেকে বাড়ির বাইরে আরও বেশি সময় থাকতে পারবেন সাধারণ মানুষ।

আন্তর্জাতিক জরিপকারী সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের সবশেষ হিসাব অনুযায়ী জানা যায়, ইংল্যান্ডে ২ লাখ ১৯ হাজার ১৮৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। করোনায় মারা গেছেন ৩১ হাজার ৮৫৫ জন মানুষ।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...