The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ‘ডি ফাইভ’ তরুণদের সচেতনতায় কাজ করবে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ তরুণদের জন্য ডিজিটাল মিডিয়ার শিক্ষামূলক প্ল্যাটফর্ম ‘D5- ডি ফাইভ’-এর যাত্রা শুরু হয়েছে। সম্প্রতি ঢাকার ইস্কাটনে এর ভার্চুয়াল স্টুডিও হতে গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব ও প্ল্যাটফর্মের প্রধান উপদেষ্টা নেহরীন মোস্তফা দিশি এর উদ্বোধন করেছেন।

ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ‘ডি ফাইভ’ তরুণদের সচেতনতায় কাজ করবে 1

এই বিষয়ে নেহরীন মোস্তফা দিশি বলেন, আমাদের তরুণরাই গড়বে ডিজিটাল বাংলাদেশ। সে লক্ষ্যেই ‘D5- ডি ফাইভ’ এই প্ল্যাটফর্মটি। করোনার ক্রান্তিকালে এই প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে ভার্চুয়াল চিকিৎসা সেবা দেওয়ার পাশাপাশি যাত্রাবাড়ী, সারোলিয়া, শনির আখড়া, মাতুয়াইলের তরুণদের জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি এবং মাদকের বিরুদ্ধে সোচ্চার করা হবে। তুলে ধরা হবে সফল ব্যক্তিদের সফলতার গল্পও।

তরুণ উপস্থাপিকা কেয়ার সঞ্চালনায় বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপকমিটির সদস্য নেহরীন মোস্তফা দিশি আরও বলেন, যাত্রাবাড়ী, শনির আখড়া, সারোলিয়া, মাতুয়াইলে আওয়ামী লীগ ও জননেত্রী শেখ হাসিনার ভিশন ২০২১ বাস্তবায়নে, মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বুকের মধ্যে ধারণ করে ,তা যেনো তরুণদের হাত ধরে আরও বেশি বেগবান করা যায়, সে লক্ষ্যে দল-মত নির্বিশেষে তরুণদের নিয়ে একযোগে কাজ করার জন্যই এই প্ল্যাটফর্মটি এবং এই প্ল্যাটফর্ম তরুণদের জন্য কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে সাবলম্বী করে দারিদ্র্য দূরীকরণের কাজ করবে।

নেহরীন মোস্তফা দিশি আশা করেন, ‘D5- ডি ফাইভ’ প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে যাত্রাবাড়ী, সারোলিয়া, শনির আখড়া, মাতুয়াইলের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ডিজিটাল ও ক্রীড়াক্ষেত্রে শিক্ষার্থীরা জীবনমুখী শিক্ষার মাধ্যমে আধুনিক ঢাকা-৫ এর উন্নয়নে অবদান রাখবেন।

এই প্ল্যাটফর্মের পরিচালক আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জানিয়েছেন, এর কার্যক্রম পরিচালিত হবে ‘D5- ডি ফাইভ’ নামে ফেসবুক পেজে, ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে।

তথ্যসূত্র: একুশে টেলিভিশন

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...