The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

গাড়ির বিক্রি বাড়ছে অনলাইনে

করোনা ভাইরাসের কারণে স্থবির হয়ে পড়েছে পুরো বিশ্ব

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ যেহেতু এ্খন অনলাইনের যুগ তাই অন্যসব পণ্যের সঙ্গে গাড়ি বেচ-বিক্রিও বেড়ে গেছে অনলাইনে। করোনার এই সময়ে অনলাইনই হলো একটি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম।

গাড়ির বিক্রি বাড়ছে অনলাইনে 1

করোনা ভাইরাসের কারণে স্থবির হয়ে পড়েছে পুরো বিশ্ব। গতিশীলতা হারিয়েছে স্বাভাবিক কাজ-কর্ম। তবে করোনাকালেও বিক্রি কমেনি অনলাইন মাধ্যমগুলোর। মানুষ চলাচলে গণপরিবহন ব্যবহারে ঝুঁকি থাকায় বেড়েছে ব্যক্তিগত গাড়ির ব্যবহারও। ব্যক্তিগত গাড়ির ব্যবহারে করোনার ঝুঁকি কিছুটা হলেও কম। তাইতো গাড়ি কেনার আগ্রহ বেড়েছে।

অফলাইনের পাশাপাশি অনলাইনেও গ্রাহকরা সার্চ করছে গাড়ি। নিজের সাধ্যর মধ্যে খুঁজে নিতে চাইলে পছন্দের গাড়ি। বাংলাদেশে আস্থার সঙ্গে গাড়ি কেনা-বেচা করে আসছে অটোমো জাপান। প্রতিষ্ঠানটি অফলাইনের পাশাপাশি অনলাইনে গাড়ি ক্রয় করা যাচ্ছে খুব সহজেই।

অটোমো জাপান এর প্রধান নির্বাহী নোমান সংবাদ মাধ্যমকে এই বিষয়ে জানান, আমরা মনে করেছিলাম এই করোনাকালীন সময় হয়তো গাড়ির বিক্রি একেবারেই কমে যাবে। তবে গ্রাহকরা গাড়ির খোঁজ করছে। এর কারণ হলোপ এই সময় মানুষ গণপরিবহন ব্যবহার মোটেও পছন্দ করছেন না, জীবনের ঝুঁকি তারা নিতে চাইছেন না। যে কারণে বেড়েছে গাড়ি বিক্রি।

তিনি আরেও জানিয়েছেন, শুধু অফলাইনে না অনলাইনেও গাড়ি কিনছেন ক্রেতারা। আমাদের প্রতিষ্ঠান হতে অনলাইনে গাড়ি কেনার সুযোগ রয়েছে। অটোমো জাপান বাংলাদেশে শুনামের সঙ্গেই গাড়ির ব্যবসা করে আসছে। পান্থপথে রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির একটি ডিসপ্লে সেন্টার। সেইসঙ্গে তারা অনলাইনেও গাড়ি বিক্রি করছেন। জাপানের অকশন হাউস হতে লাইভ অকশনের মাধ্যমেও ক্রেতারা তাদের বাজেট ও পছন্দ মতো গাড়ি অটোমো জাপান এর মাধ্যমে নিয়ে আসতে পারবেন অনায়াসে।

বিস্তারিত জানতে হলে ক্লিক করুন: https://www.facebook.com/automojp

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...