The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ফেসবুকের নতুন চমক আসছে এই সেপ্টেম্বরে!

প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ গত বছরের মাঝামাঝি সময় ডেস্কটপ ব্রাউজারে ফেসবুকে নতুন ইন্টারফেসের ঘোষণা দেন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সংবাদ মাধ্যমগুলোতে খবর বেরিয়েছে যে, ফেসবুকের নতুন চমক আসছে এই সেপ্টেম্বরে! তাহলে সেই চমকটি আসলে কী?

ফেসবুকের নতুন চমক আসছে এই সেপ্টেম্বরে! 1

বিশ্বের সর্ববৃহৎ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হলো ফেসবুক। ফেসবুক ছাড়া পুরো বিশ্বই যেনো এখন অচল। আসছে সেপ্টেম্বরে নতুন ইন্টারফেস নিয়ে হাজির হতে চলেছে ফেসবুক। বর্তমানের ‘ক্লাসিক’ ইন্টারফেসের বদলে বেশকিছু নতুন ফিচার থাকবে আনতে যাওয়া সেই ‘নতুন ফেসবুকে’।

জানা যায়, প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ গত বছরের মাঝামাঝি সময় ডেস্কটপ ব্রাউজারে ফেসবুকে নতুন ইন্টারফেসের ঘোষণা দেন। চলমান থাকা ইন্টারফেস ভার্সনটিকে ‘ক্লাসিক ফেসবুক’ আখ্যা দিয়ে চলতি বছরের শুরুর দিকেই ‘নিউ ফেসবুক’ বেটা ভার্সনে চালু করা হয়েছিলো।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের কিছু গ্রাহককে এই বেটা ভার্সন ব্যবহার করে মতামত জানানোর সুযোগও দেয় ফেসবুক। ব্যবহারকারীরা চাইলেই নতুন ভার্সন হতে পুরনো ভার্সনে ফিরেও আসতে পারেন।

তবে এবার ফিরে আসার সেই সুযোগ রাখছে না ফেসবুক। সেপ্টেম্বরে ওয়েব ব্রাউজার দিয়ে ফেসবুক ব্যবহার করলেও নতুন ভার্সনই পাবেন ব্যবহারকারীরা। পুরনো ক্লাসিক ভার্সনে ফিরে যাওয়ার কোনো সুযোগই আর থাকবে না।

নতুন ফেসবুক ইন্টারফেস ব্যবহার করে মতামত জানানোর সুযোগ বর্তমানেও রেখেছে ফেসবুক। ফেসবুক ব্যবহারের অভিজ্ঞতাকে কীভাবে আরও বেশি করে সহজ করা যায়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটি সেই পরামর্শই চেয়েছে ব্যবহারকারীদের কাছে।

ফেসবুক অ্যাপের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে সাজানো হয় নতুন ইন্টারফেস। অ্যাপের মতোই এতে রয়েছে ‘ডার্ক মুড’। তবে ব্যবহারকারীরা যেনো যেকোনো সময় ডার্ক মুড হতে লাইট মুডে আসতে পারেন সেই সুযোগও রাখা হয়েছে।

এদিকে ইন্টারফেসে ‘ফন্ট সাইজ’ বাড়িয়ে নিউজফিড অনেকটা নির্বিঘ্ন রাখছে ফেসবুক। প্রতিষ্ঠানটি বলছে যে, নিউ ইন্টারফেস ব্রাউজারে লোড হবে আরও দ্রুতগতিতে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...