The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

বেয়ার গ্রিলসের জীবনের অজানা কিছু তথ্য জেনে নিন

টিভি পর্দায় দুঃসাহসী বেয়ার গ্রিলস খুবই রোমাঞ্চকর একজন অভিযাত্রী

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ডিসকভারি চ্যানেলের জনপ্রিয় টিভি সিরিজ ম্যান ভার্সেস ওয়াইল্ডের (Man vs Wild) উপস্থাপক বেয়ার গ্রিলসকে চেনেন না এমন মানুষ বোধহয় খুঁজে পাওয়া যাবে না। সেই বেয়ার গ্রিলসের জীবনের অজানা কিছু তথ্য জেনে নিন।

বেয়ার গ্রিলসের জীবনের অজানা কিছু তথ্য জেনে নিন 1

টিভি পর্দায় দুঃসাহসী বেয়ার গ্রিলস খুবই রোমাঞ্চকর একজন অভিযাত্রী। এমন দুঃসাহসী কাজের জন্য তিনি একজন বিশ্ব বিখ্যাত। বেয়ার তার অবিশ্বাস্য সব ভ্রমণের মাধ্যমে বিশ্বকে চিনিয়েছেন নতুনভাবে। তবে আজ আমরা ডিসকভারি চ্যানেলের নয়, বরং ব্যক্তি বেয়ার গ্রিলসের জীবনের অজানা কিছু মজার মজার তথ্য জেনে নেবো।

# রোমাঞ্চকর অভিযাত্রী বেয়ার গ্রিলস খুবই বন্ধুবৎসল একজন মানুষ। একবার তো দুর্ঘটনার কবলে পড়ে পঙ্গু হয়ে যাওয়া বন্ধুর তহবিলে অর্থ জোগাড় করার জন্য নগ্ন হয়ে নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতায় অংশ নেন তিনি। ‘দ্য গ্রেট সাসেক্স বাথ রেস’ নামক ওই নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতায় বেয়ার গ্রিলসের অংশগ্রহণ তার জীবনের একটি মজার ঘটনা বলা যায়।

# বেয়ার গ্রিলসের একটি বিশ্ব রেকর্ডও রয়েছে। আর সেটি হয়তো অনেকেই জানেনও না। তিনি একবার ভূমি হতে ৭ হাজার ৬০০ মিটার উপরে এয়ার বেলুনে ভেসে বেড়িয়েছেন ও সেখানে ডিনার পার্টি করে বিশ্ব রেকর্ডও গড়েছেন!

# ম্যান ভার্সেস ওয়াইল্ড অনুষ্ঠানে বেয়ার গ্রিলস অনেকবার নিজের মূত্র পান করেছেন এটা প্রায় অনেকেই জানেন। তবে প্রচণ্ড রোদ থেকে বাঁচতে একবার তিনি মূত্রমিশ্রিত টি-শার্ট মাথায় জড়িয়েও রেখেছিলেন!

# বেয়ার গ্রিলসের একটি শিশুসুলভ আচরণ অনেকের কাছেই অজানা। আর তা হলো তিনি নাকি বাসায় বাথটাবে সবসময় সাবানের ফেনা নিয়ে খেলতে ভালোবাসেন!

# বেয়ার গ্রিলসের জীবনের আরেকটি অনন্য কীর্তিই হলো তিনি মাত্র ২৩ বছর বয়সে বিশ্বের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্ট জয় করেন। ১৯৯৮ সালে তিনি এই কীর্তি গড়েছিলেন।

# বেয়ার গ্রিলসের একটি ব্যক্তিগত দ্বীপ রয়েছে। ২০ একর জায়গাজুড়ে বেয়ার গ্রিলসের দ্বীপটি ওয়েলসে অবস্থিত। তবে তার ওই দ্বীপটিতে কোনো বিদ্যুৎ ব্যবস্থা নেই।

# ভক্তদের শরীরে নিজের ট্যাটু বেয়ার গ্রিলস খুবই পছন্দ করেন বলে তিনি এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন।

# বেয়ার গ্রিলস জীবনে বহুবারই স্কাই ডাইভিং করেছেন। তবে আফ্রিকার আকাশে প্রায় ১৬ হাজার ফুট উঁচুতে একবার তিনি স্কাই ডাইভিং করতে গিয়ে বিপদেও পড়েছিলেন। তবে তিনি ভাগ্যক্রমে সেদিন বেঁচে যান।

# বেয়ার গ্রিলসকে আমরা দুঃসাহসী এবং রোমাঞ্চকর একজন অভিযাত্রী হিসেবেই জানি। তবে মজার বিষয় হলো টেলিভিশনে তার ক্যারিয়ার শুরু হয় ডিওডোরেন্টের বিজ্ঞাপনের মডেল হিসেবে।

# ম্যান ভার্সেস ওয়াইল্ড নামে বেয়ার গ্রিলসের একটি নিজস্ব ভিডিওগেমও রয়েছে। ২০১১ সালে ভিডিওগেমটি প্লেস্টেশন ৩ (Playstation 3), নিন্টেন্ডো ডব্লিউ২ (Nintendo Wii) ও এক্সবক্স ৩৬০ (Xbox 360)-এ রিলিজ দেওয়া হয়েছিলো। তথ্যসূত্র: দেশে বিদেশে

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...