The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ইসরাইল এবার মুসলিমদের কবরস্থান ভেঙে উদ্যান বানাচ্ছে!

ইসরাইলের ঘৃণ্য এই ঘটনায় প্রতিবাদ এবং নিন্দা জানিয়েছে জর্ডান

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ হাজার হাজার বছরের ঐতিহ্য এবং স্মৃতির ধারক ও বাহক পবিত্র নগরী হিসেবে খ্যাত আল-কুদসের স্থাপনাগুলো দখল এবং তা ভেঙে ধ্বংস করে দেওয়ার ষড়যন্ত্রে মেতে ওঠেছে ইসরাইল।

ইসরাইল এবার মুসলিমদের কবরস্থান ভেঙে উদ্যান বানাচ্ছে! 1

এবার ইসরাইলের কুনজরে ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে ফিলিস্তিনের শহিদদের একটি কবরস্থান। ‘তাওরাত উদ্যান’ নামে একটি উদ্যান বানানোর পরিকল্পনা করে তারা ধ্বংস করছে মুসলিম শহিদদের এই ঐতিহ্যবাহী কবরস্থান।

আল-জাজিরা এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দখলদার ইসরাইল বাহিনী আল-কুদসের হাজার হাজার বছরের ঐতিহ্য স্মৃতিগুলো একের পর এক ভেঙে গুড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। দখল করে নিচ্ছে গ্রাম এবং শহর। ফিলিস্তিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র দাইফুল্লাহ আল ফায়েজের তথ্য মতে, জেরুজালেমের পুরাতন শহর ও আল-আকসা মসজিদের সঙ্গে সংযোগের সিঁড়িগুলোও তারা গুড়িয়ে দিচ্ছে।

এক বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, দখলদার ইসরাইলি বাহিনীর লক্ষ্যই হলো ইসলাম এবং আরবদের পরিচয় পিষিয়ে দিয়ে ইয়াহুদিদের রাজ্য প্রতিষ্ঠা করা।

এদিকে কবরস্থান রক্ষণাবেক্ষণ কমিটির চেয়ারম্যান মোস্তফা আবু জুহরা এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন যে, ‘শহীদ ফিলিস্তিনিদের এক কবরস্থানে আয়তন প্রায় ৪ হাজার বর্গমিটার। এখানে অসংখ্য শহীদের কবরসহ অনেক প্রাচীন স্মৃতিও বিদ্যমান। আল-আকসা মসজিদ হতে এই কবরস্থানের দিকে যাওয়ার সংযোগ সিঁড়িটিও ভেঙে দেওয়া হয়েছে। তারা কবরস্থানের এই জমিতে ‘তাওরত উদ্যান’ বানানোর ঘৃণ্য পরিকল্পনা নিয়েছে।

এদিকে ইসরাইলের ঘৃণ্য এই ঘটনায় প্রতিবাদ এবং নিন্দা জানিয়েছে জর্ডান। গত ১১ জানুয়ারি জর্ডানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বলেন, দখলদার দেশটির এই পদক্ষেপ আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইন ও জাতিসংঘের শিক্ষামূলক এবং সাংস্কৃতিক সংস্থার সিদ্ধান্তগুলির সুস্পষ্ট লঙঘনের সামিল। তিনি দখলদার ইসরাইল কর্তৃক এই ধ্বংস এবং সহিংস কর্মকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জানিয়ে অনতিবিলম্বে এই কর্মকাণ্ড বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছেন।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...